।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে আগামীকাল সোমবার দুইদিনের সফরে ঢাকায় আসছেন নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডারি। এটা নেপালের প্রেসিডেন্টের প্রথম বাংলাদেশ সফর।

রাষ্ট্রপতির প্রেসসচিব জয়নাল আবেদীন জানান, নেপালের প্রেসিডেন্ট ও তার সফর-সঙ্গীদের বহনকারী বিমানটির আগামীকাল সকাল ১০টার দিকে হযরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের কথা রয়েছে।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে ১৭ মার্চ থেকে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে শুরু হওয়া বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত ১০ দিনব্যাপী বিশেষ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বিদ্যা দেবী বাংলাদেশে আসছেন। রাষ্ট্রপতি বিমানবন্দরে নেপালের প্রেসিডেন্টকে অভ্যর্থনা জানাবেন। ২১ বার তোপধ্বনির পর বিমানবন্দরে নেপালের প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অর্নার প্রদান করা হবে।

হযরত শাহজালাল (র.) বিমান বন্দর থেকে নেপালের প্রেসিডেন্ট তার সফরসূচি অনুযায়ী সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের বীরদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবেন। বিদ্যা দেবী সেখানে দর্শনার্থীদের বইয়ে স্বাক্ষর করবেন এবং একটি চারাগাছ রোপণ করবেন।

এরপর, তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির পিতা ও সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করবেন। বিকেলে নেপালের প্রেসিডেন্ট সম্মানিত অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে যোগ দিবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেখানে তাকে অভ্যর্থনা জানাবেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সূত্র জানিয়েছে, নির্ধারিত সফরসূচি অনুযায়ী প্রেসিডেন্ট ভান্ডারি বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে একটি বিবৃতি দিবেন।

নেপালের প্রেসিডেন্টের সফরসঙ্গীদের মধ্যে থাকবেন পররাষ্ট্র বিষয়কমন্ত্রী প্রদীপ কুমার গিয়াওয়ালি এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, প্রেসিডেন্টের অফিস ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সিনিয়র কর্মকর্তারা।