।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চি ক্ষমতায় থাকাকালে অবৈধভাবে সোনাসহ ছয় লাখ ডলার গ্রহণ করেছেন বলে দেশটির সামরিক জান্তার একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন।

এই তথ্যটি যাচাই করা হয়েছে এবং এবং এ বিষয়ে অনেক লোককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে বৃহস্পতিবার রাজধানী নেপিডোতে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাও মিন তুন।

দেশটির ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উয়িন মিন্ট ও মন্ত্রিসভার বেশ কয়েকজন সদস্যও দুর্নীতিতে জড়িত ছিলেন বলে দাবি করেছেন তিনি।

নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে, সামরিক বাহিনী এমন অভিযোগ আমলে না নিতে উয়িন মিন্ট মিয়ানমারের নির্বাচন কমিশনকে চাপ দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন এ ব্রিগেডিয়ার।

১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের নির্বাচিত নেত্রী সু চি ও প্রেসিডেন্ট উয়িন মিন্টকে গ্রেফতার করে দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেয় সামরিক বাহিনী। পুরে সু চির দল ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (এনএলডি) আরও অনেক নেতাকে গ্রেফতার করা হয়। তারপর থেকে তারা কারাবন্দি আছেন।

গত নভেম্বরে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে এনএলডি বড় ধরনের জয় পেয়েছিল। কিন্তু দলটির জয়ের স্বীকৃতি না দিয়ে নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে বলে অভিযোগ তোলে সামরিক বাহিনী। এই অভিযোগ সামনে রেখেই শেষ পর্যন্ত ক্ষমতা দখল করে তারা।