।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে আগুন লেগে একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধ হয়েছেন। তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে। সোমবার (৮ মার্চ) দিনগত রাত ১টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দগ্ধরা হলেন- মিশাল (২৮), তার স্ত্রী মিতা (২৪), তাদের মেয়ে আফসানা (৪) ও ছেলে মিনহাজ (১৮ মাস), মিশালের শ্যালক মাহফুজুল ইসলাম (১২) ও আরেক শ্যালক সাব্বির (১৬)।

দগ্ধ মিশালের ছোট বোন জামাই মো. নাইম জানান, মিশালের স্ত্রী ও তাদের ২ সন্তানসহ ৬ জন ফতুল্লার মাজদাইল বাজার এলাকায় একটি বাড়ির ৬ তলায় ভাড়া থাকেন। বাসাটির নিচ তলাতেই মিশাইলের গেঞ্জির কারখানা রয়েছে।

তিনি জানান, গতরাতে তারা সবাই ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত ১টার দিকে মিশাল মশার কয়েল জ্বালাতে গেলে ম্যাচের কাঠি জ্বালাতেই লিকেজ থেকে রুমে জমে থাকা গ্যাসের কারণে বিস্ফোরণ হয়। এতে চারদিকে আগুন ছড়িয়ে পড়লে বাসায় থাকা ৬ জনই দগ্ধ হয়।

মঙ্গলবার (৯ মার্চ) সকালে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শংকর পাল জানান, গত রাতেই তাদের এখানে নিয়ে আসা হয়। এদের মধ্যে মিনহাজ, মাহফুজুল, সাব্বির আইসিইউতে রয়েছে। বাকি ৩ জন ৬ তলাতে রয়েছেন।

তিনি আরো জানান, মিশালের শরীরে ৯০ শতাংশ, মিতার ১৪, আফসানার ১০, মিনহাজের ৫০, মাহফুজুল ইসলামের ৮০ ও সাব্বিরের ৪২ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তাদের সবার অবস্থাই গুরুতর। তবে আইসিইউতে যে তিনজন রয়েছে তাদের অবস্থা শঙ্কটাপন্ন।