।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে আট হাজার ৩৭৪ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩৯৯ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৪৪ হাজার ১১৬ জনে। দেশে গত কয়েকদিনে করোনায় মৃত্যুর পরিসংখ্যানে দেখা যায়, গত সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) করোনায় মারা যান সাতজন। এর একদিন আগে রোববারও (২১ ফেব্রুয়ারি) মারা যান সাতজন, এর আগে শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) মারা যান পাঁচজন।  গত কয়েকদিনের ব্যবধানে করোনায় হঠাৎ মৃত্যু বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৮২৮ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৯২ হাজার ৮৮৭ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ২১৪টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১১৭টি, জিন-এক্সপার্ট ২৯টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৬৮টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১২ হাজার ৬৯৮টি। আগের নমুনাসহ মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১২ হাজার ৭৪৮টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৯ লাখ ৭১ হাজার ৫২৪টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার হার তিন দশমিক ১৩ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭০ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৫৮ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৪ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১৮ জনের মধ্যে ১০ জন পুরুষ, আটজন নারী। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১২ জন। চট্টগ্রাম ও রাজশাহী বিভাগে দুইজন করে চারজন। এছাড়া খুলনা ও রংপুর বিভাগে একজন করে দুই জন রয়েছেন। এদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ১৬ জন। আর বাড়িতে মারা গেছেন দুইজন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরে ঊর্ধ্বে ১০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে দুইজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে চারজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৩৮ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৭২ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন এক লাখ ২৬৪ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ৯০ হাজার ৩৫৫ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন নয় হাজার ৯০৯ জন।

Berger Viracare

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.