।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যাওয়ার পর সেটির ওপরে একটি ট্রাক উঠে গিয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই ৯ ব্যক্তি এবং হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২০/২৫ জন। তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার (‌১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার এলাকার আলহাজ আমজেদ আলী পেট্রোল পাম্পের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বারোবাজার হাইওয়ে থানার ওসি শেখ মেসবাহ উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে তিনি জানান, খুলনা থেকে কুষ্টিয়াগামী গড়াই পরিবহনের একটি বাস আরেকটি বাসকে ওভারটেক করতে গিয়ে বারোবাজার তেল পাম্পের কাছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের ওপর উল্টে যায়। ঠিক সে মুহূর্তে বিপরীত দিক থেকে দ্রুতগতিতে আসা একটি ট্রাক ব্রেক কষার চেষ্টা করলেও না পেরে বাসটির মাঝ বরাবর আঘাত হানে। এতে বাসটিরে সামনের ও মাঝের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়।

তিনি জানান, ঘটনাস্থলেই নারী-পুরুষ-শিশুসহ অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়াও আহতদের হাসপাতালে পাঠানোর পথে আরও একজন মারা গেছেন। ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছে। তবে তাদের পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, বাসটির সামনের এবং মাঝামাঝি অংশ দুমড়ে মুচড়ে গেছে। এটি ছিটকে রাস্তার একপাশে পড়ে আছে। আশেপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে ভিড় করছেন।

দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি পড়ে আচে। সড়কে চলছে উদ্ধার তৎপরতা।

কালীগঞ্জ ফায়ার স্টেশন অফিসার মামুনুর রশিদ জানান, বাসটির কমবেশি সব যাত্রী হতাহত হয়েছেন। আমরা আহতদের উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে মর্গে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। উদ্ধার কাজ চলছে। বিস্তারিত পরে জানানো সম্ভব হবে।