।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

চীনের গুহাগুলিতে থাকা বাদুড় থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বলে অনুমান, সেই গুহাগুলিতে তদন্ত করতে চাইছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার  বিশেষজ্ঞ দল। এমনকি উহানের একটি গুহায় এখন তদন্ত চালাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার একটি বিশেষ টিম।

জানা গেছে, করোনভাইরাস ছড়ানোর সঙ্গে সম্পর্কিত জেনেটিক প্রমাণ খুঁজছে ওই বিশেষ দল। ওই দলেরই এক বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন, আমাদের উহানের অন্য সব গুহাগুলিও খোঁজা উচিৎ, যেখান থেকে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি আছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার যে দল উহানের গুহায় খোঁজ চালাচ্ছে তাদের এক সদস্য পিটার দাসজ্যাক। তিনি একজন প্রাণীবিদ ও প্রাণী বিশেষজ্ঞও। তিনি জানিয়েছেন, ২০১৯ এর শেষে ছড়িয়ে পড়া করোনভাইরাস সম্পর্কে নতুন তথ্য পাচ্ছেন। তবে কোন কোন নতুন তথ্য উঠে এসেছে সে ব্যাপারে মুখে কুলুপ এঁটেছে পিটার।

তবে তিনি জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস কোনও পরীক্ষাগারে তৈরি হয়নি।

পিটার জানিয়েছেন, করোনার উৎপত্তি নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে নানান অভিযোগ ও পাল্টা-অভিযোগ রয়েছে। বিশেষত, আমেরিকা বহুবার চীনকে এ ব্যাপারে অভিযুক্ত করেছে। আমেরিকার দাবি, চীন সঠিক সময়ে ভাইরাসের তথ্য দেয়নি। অন্যদিকে চীনের দাবি, করোনাভাইরাস চীন না বরং অন্য কোনও দেশ থেকে ছড়িয়েছে।

পিটারের বক্তব্য, সে জানে না আদৌ চীন এই গুহাগুলি থাকা বাদুড়ের দেহ থেকে স্যাম্পেল নিয়ে পরীক্ষা করিয়েছে কিনা, তবে করোনাভাইরাস ও সার্স ভাইরাস এর মধ্যে খুব মিল রয়েছে।