Berger Viracare

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

দিনাজপুরে পুলিশের গাড়িকে সাইড দিতে বিলম্ব হওয়ায় এক বাসচালককে মারধরের প্রতিবাদে জেলার সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে জেলা মোটর পরিবহন শ্রমিকরা।

শনিবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল থেকে মহাসড়কের ওপরে বাস, ট্রাক দিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এই প্রতিবাদ জানাচ্ছেন বাস শ্রমিকেরা। শ্রমিকরা জানিয়েছেন, বিষয়টির সমাধান না হওয়া পর্যন্ত তারা যান চলাচল শুরু করবেন না।

দিনাজপুরের কয়েকজন বাস শ্রমিক নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায়  নুসরাত পরিবহনের একটি বাস রিজার্ভ যাত্রী নিয়ে ভিন্ন জগতের যাওয়ার পথে চাম্পাতলী এলাকায় পেছনে থাকা পুলিশের পিকআপ ভ্যানকে সাইড দিতে খানিকটা দেরি করে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে পুলিশ লাঠি দিয়ে নুসরাত পরিবহনের চালক হযরত আলীকে এলোপাতাড়িভাবে মারধর করে। এতে ওই চালক গুরুতর আহত হন। তার আহত হওয়ার খবরটি টার্মিনালসহ বাস শ্রমিক সংগঠনগুলোর মাঝে ছড়িয়ে পড়ায় শ্রমিকরা প্রতিবাদ শুরু করে এবং  টার্মিনাল এলাকায় মহাসড়কের ওপর এলোপাতাড়িভাবে যানবাহন রেখে অবরোধ ও বিক্ষোভ করতে থাকে। এসময় দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক নুর আলম শ্রমিকদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করলেও কোনও সুরাহা হয়নি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শ্রমিকেরা বাস-ট্রাক মহাসড়কের মাঝে মাঝে রেখে বিক্ষোভ করছেন।

আর এতে ভীষণ দুর্ভোগে পড়েছেন জেলা থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হওয়া যাত্রীরা। সরকারি-বেসরকারি অফিসের কাজ, অসুস্থ রোগীকে চিকিৎসক দেখানো, পারিবারিক জরুরি কাজসহ নানা কাজ বেরিয়ে গতকাল থেকে গন্তব্যে যেতে পারছেন না তারা। বাধ্য হয়ে অনেককে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক শেখ বাদশা যান চলাচল বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি করার চেষ্টা চলছে।

এবিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।