।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ইউনিয়নের পূর্বাচলের ১১ নম্বর সেক্টর কুমারটেক গ্রামে ডেসকো ও পবিস-২ এর ১১ হাজার ভোল্টের দুটি বৈদ্যুতিক তার ছিঁড়ে বসতঘর পুড়ে ঘটনাস্থলে তিনজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও একজনের মৃত্যু হয়। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) রাত ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, বাড়ির মালিক মাছুম মিয়া, তার স্ত্রী সীমা ও তাদের প্রতিবন্ধী দুই শিশু সন্তান।

পূর্বাচল মাল্টিপারপাস ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার উদ্দীপন ভক্ত জানান, রাত পৌনে ৯টার দিকে আমাদের পূর্বাচল মাল্টিপারপাস ফায়ার স্টেশনের সন্নিকটে কুমারটেক এলাকায় বিদ্যুতের ১১ হাজার ভোল্টের লাইন ছিঁড়ে পড়লে আগুনের সূত্রপাত হয়। এসময় ওই লাইনের নিচে বসবাস করা মাছুম মিয়ার ঘরে আগুন লেগে মুহূর্তেই সব পুড়ে যায়। এসময় ঘরে থাকা বাড়ির মালিক মাছুম মিয়া ও তার প্রতিবন্ধী দুই শিশু সন্তানসহ তিনজন ঘটনাস্থলেই দগ্ধ হয়ে প্রাণ হারান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পূর্বাচল ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট কাজ করে ২০ মিনিটের মধ্যে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। এ সময় ঘর থেকে মাছুমের স্ত্রী সীমাকে গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদের জানান, বৈদ্যুতিক তার ছিঁড়ে বসতঘরে ধরে যাওয়া আগুনে ঘটনাস্থলেই বাড়ির মালিক মাছুম মিয়া ও তার দুই শিশু সন্তানের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে নেয়ার পথে মাছুমের স্ত্রীও মারা যান বলে জানান তিনি।