।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইনজুরি যেন সমার্থক হয়ে উঠেছে পেসার তাসকিন আহমেদের। সোমবার অনুশীলন করতে গিয়ে আবারও চোটে পড়েছেন তিনি। আঘাতে তাসকিনের বাঁ হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি ও তার পাশের আঙুলের মাঝামাঝি অশংই ছিঁড়ে গেছে। শুধু চামড়াতে সমস্যা হওয়ায় হাতে সেলাই দিয়ে তাসকিনকে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এমন তথ্য জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, তাসকিনের বৃদ্ধাঙ্গুল কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে হাড়ে সমস্যা হয়নি বলে কেবল সেলাই দেওয়া হয়েছে। এই মুহূর্তে আমরা তাকে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছি। এ সময় সে অনুশীলন করতে পারবে না। ফ্র্যাকচার হয়নি, সমস্যাটা শুধু চামড়ায়।

ছোট ক্যারিয়ারে উত্থান-পতন দুটোই দেখেছেন তাসকিন। ১৯ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক অভিষেকের পরই পেয়েছেন তারকাখ্যাতি। উচ্চতা ও গতি মিলিয়ে পেস আক্রমণের ফ্রন্টলাইনার ধরা হচ্ছিল তাকে। কিন্তু বল হাতে খরুচে তাসকিন দ্রুতই হারাতে থাকেন নিজেকে। ২০১৯ সালের বিপিএলে ভালো করেও গোড়ালির চোটের কারণে নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে যেতে পারেননি। যার রেশ থেকে যায় অনেকদিন। পুনর্বাসনে অনেকটা সুস্থ হয়ে ওঠলেও ২০১৯ বিশ্বকাপের স্কোয়াডে জায়গা পাননি।

করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউনে থেকে তাসকিন নিজেকে তিলে তিলে গড়ে তুলছেলিন। ফিটনেসে এনেছেন অভাবনীয় পরিবর্তন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের জন্যও তৈরি হচ্ছিলেন। অথচ অনুশীলন শুরুর দ্বিতীয় দিনেই চোট পেয়ে বিছানায় যেতে হয়েছে তাকে। আপাতত ৭২ ঘণ্টা অপেক্ষা ছাড়া কিছুই করার নেই তাসকিনের।