।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রাজশাহীর যে এলাকায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার বেশি সেই এলাকায় টিকা যাবে আগে। করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত রাজশাহী জেলা কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সোমবার (৪ জানুয়ারি) সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় কমিটির উপদেষ্টা রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন এই কমিটির সভাপতি জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়, রাজশাহী জেলা কমিটি সকল উপজেলা কমিটির সঙ্গে সমন্বয় করে করোনার ভ্যাকসিন বণ্টনের ব্যবস্থা করবে। যে উপজেলায় সংক্রমণের হার বেশি সেই উপজেলায় আগে ভ্যাকসিন পাঠানো হবে। ভ্যাকসিন সংক্রমণের হার অনুযায়ী যাবে, জনসংখ্যার অনুপাতে নয়।

প্রথম পর্যায়ে টিকার অগ্রাধিকার পাবেন স্বাস্থ্যকর্মী, সম্মুখসারির করোনা যোদ্ধা, বয়োজোষ্ঠ এবং ঝুঁকিপূর্ণ ব্যক্তিরা। সম্মুখসারির করোনাযোদ্ধা হিসেবে বিবেচিত হবেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য, প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং সাংবাদিকরা। দ্রুতই এই তালিকা প্রণয়ন কার্যক্রম শুরু হবে।

এরপর প্রত্যেককে একটি করে কার্ড করে দেয়া হবে। সেই কার্ড নিয়ে গিয়ে তালিকাভুক্তরা টিকা গ্রহণ করতে পারবেন। উপজেলা পর্যায়ে এভাবে টিকা প্রয়োগের সিদ্ধান্ত হলেও মহানগর এলাকায় তা রাজশাহী সিটি করপোরেশনের আলাদা ব্যবস্থাপনা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হবে।

জেলা কমিটির এই সভায় রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. মো. কাইয়ুম তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরিফুল হকসহ সংশ্লিষ্ট অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।