।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইয়েমেনে সৌদি মদদপুষ্ট নবগঠিত মন্ত্রী পরিষদের সদস্যদের বহনকারী একটি উড়োজাহাজ অ্যাডেন বিমানবন্দরে অবতরণের পরপরই শক্তিশালী বিস্ফোরণ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অন্তত ২২ জন নিহত এবং ৫০ জনের বেশি আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, শপথ নেয়া নয়া সরকারের মন্ত্রীদের বহনকারী উড়োজাহাজটি রিয়াদ থেকে ইয়েমেনের অ্যাডেন বিমানবন্দরে অবতরণে পরপরই শক্তিশালী বিস্ফোরণ এবং গুলির শব্দ শোনা যায়।

ইয়েমেনের প্রধানমন্ত্রী মঈন আব্দুলমালিকসহ মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিরাপদে প্রেসিডেন্ট প্যালেসে স্থানান্তর করা হয়েছে। 

বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের কয়েক ঘণ্টা পর অ্যাডেনের প্রেসিডেন্ট প্যালেসের আশপাশে দ্বিতীয় বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। যেখানে প্রধানমন্ত্রী মঈন আব্দুলমালিক ও নয়া সরকারের অন্যান্য সদস্য এবং ইয়েমেনে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সাইদ আল-জাবেরকে নিরাপত্তার জন্য নেওয়া হয়েছে।

সৌদি মদদপুষ্ট ইয়েমেনের নতুন সরকারের প্রেসিডেন্ট মানসুর হাদি।

তাৎক্ষণিকভাবে এ হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি। সৌদি নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন এ হামলার জন্য হুথি বিদ্রোহীদের দায়ী করেছে। 

প্রেসিডেন্ট প্যালেস থেকে প্রধানমন্ত্রী মঈন আব্দুলমালিক টুইটে জানিয়েছেন, আমরা এবং সরকারের সদস্যরা অস্থায়ী রাজধানী অ্যাডেনে রয়েছি। সবাই ভালো আছি।

হুথি বিদ্রোহীরা ইয়েমেনের মূল রাজধানী সানাসহ দেশটির উত্তরের অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে।