।।  বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

এমভি ভেনাস ট্রায়াম্প। পানামা পতাকাবাহী বাণিজ্যিক জাহাজটি সফলভাবে ভিড়েছে মাতারবাড়ী বন্দর জেটিতে।

বন্দরের নিজস্ব দুইজন সিনিয়র পাইলটের নেতৃত্বে শক্তিশালী টাগবোট ‘কাণ্ডারী-৮’ এর সহায়তায় জাহাজটি মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় জেটিতে আনা হয়। ভোর সাড়ে ৫টার দিকে জাহাজটি ইন্দোনেশিয়া থেকে চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙরে আসে।  

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সহকারী হারবার মাস্টার ক্যাপ্টেন মো. আতাউল হাকিম সিদ্দিকি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্রবন্দর চ্যানেলের ড্রাফট বেশি থাকায় জোয়ারের জন্য বহির্নোঙরে অপেক্ষা না করেই জাহাজটি সরাসরি জেটিতে ভিড়তে সক্ষম হয়েছে। চট্টগ্রাম বন্দরে কর্ণফুলী নদীর জোয়ারের ওপর নির্ভর করে বহির্নোঙরে (সাগর) অপেক্ষমাণ জাহাজ জেটিতে আনা হয়। অপেক্ষার সময় বাড়লে পরিবহন ব্যয় বাড়ে আমদানিকারকদের। 

বন্দর সূত্রে জানা গেছে, এ জাহাজে ৩১৩ প্যাকেজে ৭৩৬ টন স্টিল স্ট্রাকটার আনা হয়েছে উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য। এর মধ্যে রয়েছে বিম, কলাম, গার্ডার, টাওয়ার ইত্যাদি। জাহাজটির স্থানীয় এজেন্ট অ্যানসাইন্ট স্টিমশিপ কোম্পানি লিমিটেড।

চট্টগ্রাম বন্দরের ডেপুটি কনজারভেটর ক্যাপ্টেন ফরিদুল আলম জানান, বন্দরের পাইলট ভ্যাসেল ‘রক্ষী’ বহির্নোঙর থেকে ৫ দশমিক ৬ মিটার ড্রাফটের ১২০ মিটার লম্বা ‘এমভি ভেনাস ট্রায়াম্প’ আনার জন্য সিনিয়র পাইলট রহমতুল্লাহ খানকে নিয়ে যায়। তার আগে বন্দর চ্যানেলে জাহাজটি নিরাপদে আসার জন্য ৬টি বয়া বসানো হয়। এ ছাড়া সাগরের তলদেশে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের পাইপ লাইন বসানোর কাজে নিয়ে নিয়োজিত বিশেষায়িত জাহাজটি দূরে সরিয়ে দেয়া হয়। পুরো বিষয়টি মনিটরিং করেন বন্দরের সদস্য কমডোর মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান।