।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইরানের রাজধানী তেহরানের কাছের এক পর্বতমালায় তুষারঝড় ও বরফ ধসে ১০ পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

রাজধানীর কাছে হওয়ায় ইরানের এ অ্যালবর্জ পর্বতমালা আরোহী ও স্কি করতে ইচ্ছুকদের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয় হলেও কয়েকদিন ধরে সেখানে বিপজ্জনক আবহাওয়ার দেখা মিলছে।

রেড ক্রিসেন্ট কর্তৃপক্ষ পর্বতমালাটিতে আটকে পড়াদের উদ্ধারে ২০টি দল পাঠিয়েছে, তারা ১৪ জনকে উদ্ধার করেছে; ৭ জন এখনও নিখোঁজ বলে জানিয়েছে বিবিসি।

তুষারঝড় ও বরফ ধসে মৃতদের মধ্যে রাজনৈতিক কর্মী, গবেষক, চিকিৎসক ও পর্বতারোহন বিষয়ক এক প্রশিক্ষকও আছেন।

শনিবার রাতে বন্ধ থাকলেও রোববার সকাল থেকে উদ্ধারকাজ ফের শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

শুক্রবার একটি স্কি রিসোর্টের কেবল কার নষ্ট হয়ে পড়লে সেখানে প্রায় ১০০ মানুষ আটকা পড়েন; ওই অঞ্চলে খারাপ আবহাওয়া ও সম্ভাব্য বরফ ধসের ব্যাপারে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেশটির অনেকে জিপিএস ব্যবস্থাপনার ত্রুটি নিয়ে অভিযোগ করেছেন, এই জিপিএস ব্যবস্থাপনার উপরই পর্বতারোহীরা অনেকাংশে নির্ভর করে। তবে যারা তুষারঝড় বা বরফ ধসের কারণে আটকা পড়েছিলেন তাদের কেউ জিপিএসের ত্রুটিতে সমস্যায় পড়েছিলেন কিনা, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।