।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় জাতীয় নগর দারিদ্র হ্রাসকরণ কর্মসূচি বাস্তবায়নে নগরের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী নারীদের মাঝে ব্যবসা সহায়তা অনুদান বিতরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে উপস্থিত থেকে কয়েকজনের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যবসা সহায়তা অনুদানের অর্থ তুলে দেন রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

মোট ৬৪৭জন নারীর প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৬৪ লাখ ৭০ হাজার টাকা ব্যবসা সহায়তা অনুদান প্রদান করা হচ্ছে। প্রথমদিন ২২৫জন নারীর প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) ৪২২জনের মাঝে বিতরণ করা হবে। ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং রকেটের মাধ্যমে উপকারভোগী নারীদের মোবাইলে ব্যবসা সহায়তা অনুদান পৌছে দেয়া হচ্ছে।

রাসিক লিটন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন, যে স্বপ্ন বাস্তবায়নে বীর মুক্তিযোদ্ধারা জীবন দিয়েছেন, সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এরই অংশ হিসেবে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি কাজ করছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান প্রকল্পের আওতায় ঋণ প্রদান, গৃহহীনদের গৃহ নির্মাণ, অবকাঠামো, রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণসহ বিভিন্ন কাজ করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী মুজিববর্ষে গৃহহীনদের গৃহ নির্মাণ করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর সেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে আমরাও কাজ করে যাচ্ছি।

রাসিক মেয়র আরো বলেন, রাজশাহী নগর দেশের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পরিচ্ছন্ন ও বাসযোগ্য শহরের সুনাম অর্জন করেছে। আগামীতে এই মহানগরীকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। মহানগরীর উন্নয়নে ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। প্রকল্পের কাজ শেষ হলে রাজশাহীর চেহারাই পাল্টে যাবে। রাজশাহীর মানুষের কর্মসংস্থানের জন্য তিনটি শিল্পাঞ্চলও অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী ৫/৭ বছরে এই তিন শিল্পাঞ্চলে লক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থান হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন রাসিকের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পে সদস্য সচিব ও নির্বাহী প্রকৌশলী নূর ইসলাম তুষার, ডাচ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং রকেট এর রিজ্যুনাল ম্যানেজার মো. শহিদুল ইসলাম, রাসিকের চিফ কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার আজিজুর রহমান প্রমুখ।

স্বাগত বক্তব্য দেন প্রকল্পের টাউন ম্যানেজার আব্দুল কাইয়ুম মন্ডল। তিনি জানান, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর যেসব নারীদের আয়ের কোন সুযোগ নেই, তাদের আয়ের জন্য ইউকেএইড এর সহায়তায় এককালীন ব্যবসা সহায়তা অনুদান প্রদান করা হয়েছে। উপকার ভোগীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। উপকারভোগীরা ব্যবসা পরিকল্পনা করেছেন, সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী ব্যবসার কাজে অনুদানের অর্থ ব্যয় করবেন।