মসজিদ মিশন একাডেমি

।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহী মসজিদ মিশন একাডেমিকে জামায়াতে ইসলামীর নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করতে একাট্টা হয়েছে স্থানীয় প্রগতিশীল রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো। মসজিদ মিশন নামের সংস্থাটির নিবন্ধন বাতিল করে স্কুল ও কলেজকে সরকারের শিক্ষানীতি ও শিক্ষামন্ত্রণালয়ের বিধানের আওতায় পরিচালনা ও পুনর্গঠনের দাবি জানান এসব সংগঠনের নেতারা।

সোমবার বিকেলে রাজশাহীতে সর্বদলীয় এক বৈঠক শেষে সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে এক যুক্ত বিবৃতি দেয়া হয়। সেখানে বলা হয়, “রাজশাহী মসজিদ মিশন একাডেমি ও কলেজ এই শহরে প্রতিষ্ঠাকাল থেকে এখন পর্যন্ত জামায়াত-শিবির চক্র দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। এই প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন ধরে সাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রের আখড়ায় পরিণত হয়েছে।”

বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে বৈঠকে অংশ নেন রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, নগর সিপিবি সভাপতি এনামুল হক, নগর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দেবাশিস প্রামাণিক দেবু, স্থানীয় বাসদ সমন্বয়ক আলফাজ হোসেন, জাসদ সহ সভাপতি সাহ্‌রিয়ার রহমান, নগর জাসদ সভাপতি আবদুল্লাহ আল মাসুদ শিবলী, বাংলাদেশ জাসদ স্থানীয় শাখার সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, ন্যাপ কমিউনিস্ট পার্টি ছাত্র ইউনিয়ন গেরিলা বাহিনীর সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট সাইদুল ইসলাম, জেলা গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মুরাদ মোর্শেদ, নগর বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল হক কুমার, রাজশাহী সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার ঘোষ, নগর বাকশিস সাধারণ সম্পাদক এসএম রেজাউল ইসলাম, মুক্তিযুদ্ধ পাঠাগারের সভাপতি আবদুল লতিফ চঞ্চল, গ্রাম থিয়েটারের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামারউল্লাহ সরকার, ঋত্বিক ঘটক ফিল্ম সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেন মাসুদ, রাজশাহী সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল ও নগর আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি নিতাই কুমার সরকার।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিরীক্ষা প্রতিবেদনে মসজিদ মিশন একাডেমির ১২ কোটি টাকা আত্মসাতের তথ্য তুলে ধরে বিবৃতিতে বলা হয়, মসজিদ মিশন নামক পরিচালনাকারী সংস্থাটি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে চাঁদা, বিত্তবানদের কাছ থেকে অনুদান গ্রহণ করে। পাশাপাশি অনুদান, সাদকা ও জাকাতের মাধ্যমে প্রতিবছর লাখ লাখ টাকা সংগ্রহ করে অডিট বহির্ভুতভাবে। সংগৃহীত অর্থ জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতির পৃষ্ঠপোষকতায় ব্যয় করা হয় বলে বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়।

মসজিদ মিশনের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক চর্চার অভিযোগ তুলে বিবৃতিতে বলা হয়, স্কুল ও কলেজের কোনো শাখায়ই অমুসলিমদের নিয়োগ বা লেখাপড়ার সুযোগ দেয়া হয় না। প্রতিষ্ঠানটিকে ‘স্বাধীনতাবিরোধী’ হিসেবে চিহ্নিত করে বিবৃতিতে আরও বলা হয়, এই প্রতিষ্ঠানে শুধুমাত্র জামায়াত-শিবিরের দলীয় ক্যাডারদের নিয়োগ দেয়া হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত শক্তি সরকারের আইন অমান্য করে সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে অনুমোদনহীন কমিটির দ্বারা সংস্থাটি কার্যক্রম চালাচ্ছে এবং আইন অমান্য করে রজাশাহী শিক্ষাবোর্ড থেকে বিশেষ কমিটি গ্রহণের সুযোগ নিয়ে শিক্ষাব্যবস্থার সঙ্গে প্রতারণা করছে। এ বিষয়ে সরকারকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

Berger Weather Coat