।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।  

দেশে খাদ্য উৎপাদন যদি তিন গুণও বৃদ্ধি পায়, আর যদি বণ্টন ব্যবস্থা সুষ্ঠু না হয়; তবে দেশে দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে। চাল, পেঁয়াজ, মরিচসহ মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের ওপর সরকারের নিয়ন্ত্রণ নেই। বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে ডিলার ও ব্যবসায়ী সিন্ডিকেট। দেশে বোরো ধানের বাম্পার ফলনের পরও চালের দাম প্রতিদিনই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। সরকার চলতি মৌসুমে ধান-চাল সংগ্রহের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল তারচেয়ে ৯ লাখ টন কম সংগ্রহ হয়েছে। চালের বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সিন্ডিকেটের কাছে প্রতিবারের মত এবারও সরকার অসহায় আত্মসমর্পণ করছে।

রাজশাহী জেলা ও নগর ওয়ার্কার্স পার্টি আয়োজিত চালের উর্ধ্বমূল্য রোধ ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে আয়োজিত প্রতীকী মানববন্ধনে এসব অভিযোগ তুলে ধরেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) জেলা প্রশাসনের মূল ফটকের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী জেলা ওয়ার্কার্স পাটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল। 

পরে চালের উর্ধ্বমূল্য রোধ ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবি জানিয়ে রাজশাহী জেলার খাদ্য নিয়ন্ত্রকের মাধ্যমে খাদ্যমন্ত্রী বরাবর স্মারলিপি তুলে দেন জেলা ও নগর ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী জেলা ওয়ার্কার্স পাটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা, নগর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামাণিক দেবু, নগর ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মনিরুজ্জামান মনির, সদস্যমণ্ডলির সদস্য মনিরুদ্দিন পান্না, নগর ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক সম্রাট রায়হান।

Berger Weather Coat