পড়তে পারবেন < 1 মিনিটে

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ফের লাদাখে বিরাজ করছে চরম উত্তেজনা। ভারত সরকারের বরাত দিয়ে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) শনিবার রাতে প্যাংগং টিএসও লেকের কাছে স্থিতাবস্থা নষ্ট করতে উস্কানিমূলক পদক্ষেপ চালায়। তবে তা রুখে দিয়েছে ভারতীয় বাহিনী। ভারত সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২৯ অগাস্ট রাত থেকে ৩০ অগাস্ট ভোর পর্যন্ত প্যাংগং লেকের দক্ষিণ প্রান্তে চীনের সেনার পেট্রোল দেখতে পায় ভারতীয় সেনা।

ভারতের অভিযোগ, প্যাংগংয়ের দক্ষিণে ভারতীয় ভূখণ্ডে চীনের সেনা নতুন করে ঢোকার চেষ্টা করছিল। এসময় ভারতীয় সেনা চীনের সেনাবাহিনীকে বাধা দেয়। সেনা সূত্রের খবর, এসময় দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতিও হয়েছে। তবে হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

ভারতের সেনাবাহিনীর জনসংযোগ কর্মকর্তা কর্নেল আমন আনন্দ বলেন, সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনার মাধ্যমে পূর্ব লাদাখে সঙ্ঘাত পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে যে ঐক্যমত্যে পৌঁছনো গিয়েছিল, ২৯-৩০ আগস্ট রাতে পিএলএ তা লঙ্ঘন করেছে। স্থিতাবস্থা নষ্ট করতে সেখানে প্ররোচনামূলক সামরিক পদক্ষেপ করেছে তারা। তবে চীন এ নিয়ে এখন পর্যন্ত কোন মন্তব্য করেনি।

আমন আনন্দ আরো বলেন, প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণে চীনা বাহিনীর এই আগ্রাসন প্রতিহত করতে সক্ষম হয় ভারতীয় বাহিনী। সেখানে নিজেদের অবস্থান মজবুত করা হয়েছে। একতরফা ভাবে চীন পরিস্থিতি বদলানোর চেষ্টা করে। কিন্তু তাদের সেই প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

লাদাখে নতুন করে এই উত্তেজনার পর দুই দেশের বাহিনীর মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে বলেও জানিয়েছেন কর্নেল আনন্দ।

এ নিয়ে তিনি বলেন, আলাপ আলোচনার মাধ্যমে শান্তি ও স্থিতাবস্থা বজায় রাখার পাশাপাশি আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ভারতীয় সেনা। লাদাখের পরিস্থিতি নিয়ে চুসুলে ব্রিগেড কমান্ডার স্তরের ফ্ল্যাগ মিটিং চলছে।

এর আগে জুনে লাদাখে ভারতীয় সেনা ও চীনা আর্মির সংঘর্ষে ভারতের ২৩ সেনা নিহত হয়।

Berger Weather Coat