।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

সীমান্ত বিতর্কের মধ্যে উন্নয়নমূলক প্রকল্পের অগ্রগতি পর্যালোচনা করতে আলোচনার টেবিলে বসল ভারত ও নেপাল। সোমবার (১৭ আগস্ট) এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে এদিন দুদেশের শীর্ষ কূটনীতিকরা বৈঠক সেরেছেন ভার্চ্যুয়ালি। খবর জিনিউজের। নেপালে ভারতীয় সহায়তায় উন্নয়নমূলক প্রকল্পের পর্যালোচনা করতেই এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৈঠকে নেপালের পক্ষে বিদেশ সচিব শঙ্কর দাস বৈরাগী এবং ভারতের পক্ষে নেপালে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিনয় মোহন কাওয়ার্তা অংশ নেন। বৈঠকে ভারত ও নেপাল বিভিন্ন দ্বিপক্ষীয় উন্নয়নমূলক কর্মসূচির অগ্রগতি পর্যালোচনা করেছে। একইসঙ্গে ভারতীয় সহায়তায় গৃহীত কর্মসূচিগুলোর দ্রুত বাস্তবায়ন করতে সম্মত হয়েছে।

দুই দেশের মধ্যে প্রচলিত পর্যবেক্ষণ বন্দোবস্ত অনুযায়ী সোমবারের ওই বৈঠক ছিল অষ্টম পর্যায়ের। সপ্তম বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল গত বছরের ৮ জুলাই। বৈঠকে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় ভারতের অবদানের কথা স্বীকার করে নেপাল।

নেপালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিবৃতিতে বলা হয়, দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার মধ্যে থাকা তরাই সড়ক, আন্তসীমান্ত রেল যোগাযোগ, অরুণ-৩ জলবিদ্যুৎ প্রকল্প, পেট্রপণ্য সরবরাহের পাইপলাইন, সেচ ব্যবস্থা, ভূমিকম্প-পরবর্তী স্থাপনা, বিদ্যুৎ সরবরাহ লাইন, মহাকালী নদীর ওপর যানচলাচলের উপযুক্ত সেতু তৈরিসহ বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে দুই দেশের আলোচনা হয়।

২০১৬ সালে ইন্দো-নেপাল ওভারসাইট মেকানিজম প্রক্রিয়া শুরু হয় দুই দেশের সম্পর্কের ওপর নজরদারি রাখার জন্য। মূলত নেপালে ভারতের টাকায় যে প্রকল্পগুলো চলছে, সেগুলো ঠিকঠাক চলছে কি-না সেটা দেখে এই কমিটি। এর আগে ২০১৯ সালের জুলাই মাসে বৈঠক হয়েছিল। তারপর হওয়া যাবতীয় অর্থনৈতিক ও উন্নয়নভিত্তিক কাজের জরিপ করা হয় এদিন।

Berger Weather Coat