।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের শারীরিক অবস্থার ভীষণ অবনতি ঘটেছে। সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পর রাজশাহী মহানগরীর মহিষবাথান এলাকায় বোন ডা. শিখা বিশ্বাসের বাসায় আছেন ক্যান্সার আক্রান্ত এই শিল্পী। এন্ড্রু কিশোরের দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা শফিকুল আলম বাবু জানান, দেশে ফিরলেও এন্ড্রু কিশোরের শারীরিক অবস্থা ভাল যাচ্ছে না। রোববার সকাল থেকে তার শারীরিক অবস্থার খুব অবনতি ঘটেছে। কারও সঙ্গে কথা বলার মতো অবস্থাতেও তিনি নেই। এন্ড্রু কিশোরের জন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।

গত বছরের ৯ সেপ্টেস্বর শরীরের নানা জটিলতা নিয়ে সিঙ্গাপুর চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন এন্ড্রু কিশোর। শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তার শরীরে ব্লাড ক্যান্সার ধরা পড়ে। এরপর থেকেই সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। ছয়টি ধাপে তাকে ২৪টি কেমোথেরাপি দেয়া হয়। এরপর ১১ জুন রাতে একটি বিশেষ ফ্লাইটে তাকে দেশে আনা হয়। তারপর থেকে তিনি রাজশাহীতে আছেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭৭ সালে ‘মেইল ট্রেন’ চলচ্চিত্রের মধ্য দিয়ে প্লেব্যাক গায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু এন্ড্রু কিশোরের। এরপর আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘আমার সারা দেহ খেও গো মাটি’ ও ‘আমার বুকের মধ্যে খানে’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় বাংলা গান উপহার দিয়েছেন শ্রোতাদের।

Berger Weather Coat