।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইতালির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তারা এরইমধ্যে মানুষের ‌ওপর পরীক্ষা করে দেখার জন্য সফল করোনা ভ্যাকসিন তৈরিতে সমর্থ হয়েছে। সিএনবিসি নিউজ জানিয়েছে, রোমের স্পালানজানি হাসপাতালে সংক্রমণ বিশেষজ্ঞরা এ ভ্যাকসিন পরীক্ষা করেছেন। মঙ্গলবার সায়েন্স টাইমস ম্যাগাজিনে ইতালীয় গবেষকদের এ বিবৃতি প্রকাশিত হয়েছে।

ইতালীয় গবেষকরা বলছেন, ইঁদুরের দেহে ওই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে দেখা গেছে, তা করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি তৈরিতে সক্ষম। বিজ্ঞানীরা বলছেন, ওই অ্যান্টিবডি মানবকোষেও করোনাভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় করতে সক্ষম হবে। গ্রীষ্ম মৌসুম শেষে এই ভ্যাকসিন মানুষের দেহে প্রয়োগের চিন্তাভাবনা করছেন তারা।

ইতালীয় ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থা টাকিসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লুইগি আরিসিচিও ইতালীয় সংবাদ সংস্থা এএনএসএকে জানিয়েছেন, বিজ্ঞানীদের তৈরি ভ্যাকসিন মানুষের শরীরে যে কার্যকর হবে, তার সংকেত মিলেছে স্পালানজানি হাসপাতালেই। তিনি মনে করেন, এটিই বিশ্বের প্রথম ক্যান্ডিডেট ভ্যাকসিন (যে ভ্যাকসিন সরকারি ছাড়পত্রের অপেক্ষায়), যা মানুষের শরীর থেকে করোনাভাইরাসকে দূরে রাখতে সক্ষম।

লুইগি আরিসিচিও আরও জানিয়েছেন, এ মুহূর্তে তাদের গবেষণা প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তাদেরকে প্রাযুক্তিক সহায়তা দিচ্ছে মার্কিন সংস্থা লিনারেক্স।

এ মুহূর্তে সারা বিশ্বই কোন দেশ আগে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করতে পারে, সে অপেক্ষায় রয়েছে। তবে কোনও প্রতিযোগিতায় যেতে রাজি নন লুইগি। তিনি বলেন, ‘করোনার সঙ্গে লড়ছে সবাই। আমরা কোনও প্রতিযোগিতায় নেই; বরং সবার সহায়তা পেলেই লড়াই সার্থক হবে।’