।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার সব সময়ই কৃষকদের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী ও এ দেশের কৃষকদের নিরলস চেষ্টায় দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। সরকার ব্যাপকভাবে ভুর্তকি দিচ্ছে, বিনামূল্যে সার, বীজ দিচ্ছে। পর্যায়ক্রমে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা সংগ্রহ করে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে সহায়তা দেয়া হবে।

শনিবার (২৫ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে নাটোরের সিংড়া উপজেলার ছাতারদিঘী ইউনিয়ন ও রামানন্দ খাজুরা ইউনিয়নে শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত জমি পরিদর্শন শেষে নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে এদেশের কৃষকরা জমিতে ঠিকমতো সার বা কীটনাশক দিতে পারতো না। বিএনপি সরকার সারের জন্য কৃষককে গুলি করে হত্যা করেছে। কিন্তু শেখ হাসিনার সরকারের সময় কৃষকরা বিনামূল্যে সার, বীজসহ কৃষিসামগ্রী পেয়ে থাকেন।

 তিনি আরো বলেন, চলনবিল হচ্ছে উত্তরাঞ্চলের কৃষি প্রধান এলাকা। চলনবিলের ধান সারাদেশের চাহিদার কিছু অংশ পূরণ করে। শিলাবৃষ্টির কারণে এলাকার কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। তাই কৃষকদের ধৈর্য ও সহনশীলতার সঙ্গে ক্ষতি মোকাবিলা করতে হবে। বর্তমান সরকার কৃষকদের পাশে আছে, থাকবে। মানসিকভাবে আমাদের শক্তিশালী হতে হবে, মহান আল্লাহর প্রতি ভরসা রেখে সবকিছু মোকাবিলা করতে হবে।

শিলাবৃষ্টিতে প্রায় তিন হাজার হেক্টর জমির ফসল বিনষ্ট এবং টিনের চাল ফুটো হয়ে ঘরবাড়ি বিনষ্ট হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন বানু, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলতাব হোসেন আকন্দ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাজাহান আলী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফ বাদশা, পিআইও আল আমিন সরকার, রামানন্দ খাজুরা ইউপি চেয়ারম্যান তপন কুমার সরকার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইদ্রীস আলী, সাধারণ সম্পাদক মুকুল হোসেন, সহ সভাপতি জাকির হোসেন, হান্নান শাহরিয়ার সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

এসময় প্রতিমন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্ত ৩৪টি পরিবারের প্রত্যককে ১ বান্ডিল ঢেউটিন ও নগদ তিন হাজার টাকা করে দেন।