।। অরবিন্দ ছাবড়া, বিবিসি ।।

একজন মানুষের কারণে ভারতের উত্তর পাঞ্জাবে ২০ গ্রামের ৪০ হাজার মানুষকে কোয়ারেন্টিনে রাখতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন।

৭০ বছরের সেই ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার মৃত্যুর পর তার ভাইরাস সংক্রমন ও ছড়ানোর বিষয়টি সামনে আসে।

দায়িত্বশীলরা বিবিসিকে নিশ্চিত করেছে, ওই ধর্মপ্রচারক ইতালি ও জার্মান ঘুরে এসে হোম কোয়ারেন্টিনের বিধান লঙ্ঘন করেন।

বালদেব সিং নামের ওই ব্যক্তি মৃত্যুর অল্প কিছুদিন আগে শিখ ধর্মাবলম্বীদের বড় ধর্মীয় উৎসবেও অংশ নেন। ৬ দিনের ওই উৎসবে প্রতিদিন অন্তত ১০ হাজার মানুষের জমায়েত হয়।

বালদেবের মৃত্যুর এক সপ্তাহ পর তার ১৯ আত্মীয়ের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমন ধরা পড়ে।

একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, এখন অবধি তারা ৫৫০ জনকে পেয়েছেন যারা সরাসরি বালদেবের সংস্পর্শে এসেছিলেন। সংখ্যাটি ক্রমশ বাড়ছে। সে কারণে বালদেব ঘুরেছেন এমন ১৫টি গ্রাম লকডাউন করে দেয়া হয়েছে।

বাড়তি সতর্কতার অংশ হিসেবে সংলগ্ন আরও ৫টি গ্রামও লকডাউন করে দেয়া হয়। এসব গ্রামে প্রায় ৪০ হাজার অধিবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।