।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

চীনে কোয়ারেন্টাইন হোটেল ধসের ঘটনায় প্রাণহানির সংখ্যা বেড়ে ১০ জনে দাঁড়িয়েছে। দুর্ঘটনায় এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত ২৩ জন।

গত শনিবার (০৭ মার্চ) চীনের কুয়ানজো শহরে কোয়ারেন্টাইন হোটেল ধসের ঘটনা ঘটে। এরপর উদ্ধারকারীরা অভিযান চালিয়ে ধসে পড়া ভবনটির ভেতর থেকে একে একে ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করেন।

তবে এখনও উদ্ধারকর্মীরা দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ ফুজিয়ানে ধসে পড়া পাঁচতলা জিনজিয়া হোটেলের ভেতরে কেউ আটকা পড়েছেন কিনা তা অনুসন্ধানে অভিযান অব্যাহত রেখেছেন।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ধসে পড়ার সময় ভবনটির ভেতরে অন্তত ৭১ জন লোক ছিলেন। তবে ভবনটি হঠাৎ এভাবে ধসে পড়ার কোনো কারণ এখনও জানা যায়নি।

চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, হোটেলটি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা হচ্ছিলো। ধসের ঘটনার সময় এর ভেতরে থাকা ৭১ জনের মধ্যে ৫৮ জনই কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন।

ভবনটির নিচতলায় গত লুনার ইয়ার থেকে সংস্কারের কাজ চলছিলো। ধসের ঘটনায় এর মালিককে ডাকা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

২০১৮ সালে ৮০টি কক্ষ নিয়ে যাত্রা শুরু করে হোটেলটি। দেশটিতে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি পেতে থাকলে বিভিন্ন স্থাপনাকে হাসপাতালে রূপান্তর করে রোগীদের সেবা কার্যক্রম শুরু করে কর্তৃপক্ষ।