।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহীর বাগমারায় বাসের ধাক্কায় দাদা ও নাতি নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) দুপুর পৌনে ১টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় বাসচালকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া ঘাতক বাসটিও জব্দ করা হয়েছে।

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হচ্ছে। কিছুক্ষণের মধ্যে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর কথা রয়েছে।

বাসের ধাক্কায় নিহতরা হলেন- রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার বড়বিহানলী গ্রামের জাবের আলী (৬০) তার নাতি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ (৭)। আব্দুল্লাহর বাবার নাম মাইনুল ইসলাম। এর মধ্যে জাবের আলী পেশায় ভ্যানচালক।

রাজশাহীর বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, দুপুর পৌনে একটার দিকে উপজেলার ভবানীগঞ্জ থেকে একটি যাত্রীবাহী বাস নওগাঁর আত্রাইয়ের উদ্দেশে যাচ্ছিল।

বাসটি উপজেলার মুড়াড়িপাড়া মোড়ে পৌঁছালে ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যানটিকে ধাক্কা দেয়। এতে দাদা ও নাতি রাস্তার ওপরে ছিটকে পড়ে এবং ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। এ সময় স্থানীয় জনতা ঘাতক বাসচালককে আটক করে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তখন বাসচালককে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে।

বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, রিকশাভ্যানটিতে দাদা-নাতি দু’জনই ছিল। তারা হাট থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে সড়ক দুর্ঘটনায় তাদের মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থল থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হচ্ছে। দুপুরের মধ্যেই তাদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।

এ ব্যাপারে মামলা হবে বলেও জানান বাগমারা থানার এই পুলিশ কর্মকর্তা।