।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চর এলাহি ইউনিয়নে দিদার হোসেন সৌরভ (৩৬) নামের এক যুবককে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা। তাদের হামলায় বাহার মিয়া ও মো. হোসেন নামে আরও দু’জন আহত হয়েছেন। রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে চরবালুয়া পুলিশ ফাঁড়ি থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। দিদার হোসেন ৬ নম্বর ওয়ার্ড চর বালুয়া গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে। তিনি ওই ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ছিলেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে চর বালুয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ, সহকারী উপ-পরিদর্শক জাকির হোসেন জানান, দিদার হোসেনের নিজস্ব এক্সকেভেটর (খননযন্ত্র) মেশিন ছিল। তার মধ্যে একটি মেশিনের চালক ছিলেন স্থানীয় চর আমজাদ গ্রামের বাহার মিয়া। শনিবার রাতে মেশিনের ভাড়ার হিসাব করতে বাহারের বাড়িতে যান দিদার। এ সময় ১০ থেকে ১২ জন মুখোশধারী দুর্বৃত্ত বাহারের বাড়িতে হামলা চালায়। দুর্বৃত্তরা দিদার হোসেন, বাহার ও হোসেনকে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকে। একপর্যায়ে মুখোশধারীরা সৌরভকে টেনে হিঁচড়ে ঘর থেকে উঠানে বের করে গলা কেটে পালিয়ে যায়। এতে রক্তক্ষরণ হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক জানান, রাত ২ টার দিকে চরবালুয়া পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে। দুপুরে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে কারা জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।