।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ইরাকে অবস্থিত মার্কিন বিমান ঘাঁটিতে ইরানের মিসাইল হামলার ঘটনায় ৩৪ সেনা মস্তিষ্কে আঘাতজনিত সমস্যায় ভুগছে বলে জানিয়েছে পেন্টাগন। যদিও এর আগে ওই হামলায় মাত্র ৮ সেনা আহত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শনিবার (২৫ জানুয়ারি) বিবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়। 

পেন্টাগন জানায়, আহত ৩৪ সেনার মধ্যে ১৭ জনকে মেডিক্যাল পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। এদিকে ৩৪ সেনার আহত হওয়ার খবরে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে নতুন করে সমালোচনা শুরু হয়েছে। ইরানের মিসাইল হামলার পরপর ট্রাম্প বলেন, ওই হামলায় মার্কিনিদের তেমন উল্লেখযোগ্য কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। মাত্র ৮ জন সেনা কিছুটা আহত হয়েছেন।

সে সময় ট্রাম্প এও বলেন, ইরানের হামলায় ক্ষয়ক্ষতি কম হয়েছে বলেই তাদের আর পাল্টা হামলা করা হয়নি। যদি ক্ষয়ক্ষতি বেহসি হতো তাহলে দাঁত ভাঙা জবাব দেওয়া হতো। কিন্তু এখন নতুন করে পেন্টাগন জানাচ্ছে যে, ইরানের মিসাইল হামলায় ৩৪ সেনা আহত। এ তথ্যে ট্রাম্পের পূর্বের বক্তব্য ঘিরে সমালোচনা উঠছে। 

এদিকে পেন্টাগন এও জানায়, সোলেমানি হত্যার জেরে ইরানের ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বেশ কয়েক মার্কিন সেনা আহত হলেও একজনও নিহত হননি। ক্ষেপণাস্ত্র হামলার কালে বেশিরভাগ সেনাই বাঙ্কারে অবস্থান নিয়েছিল।

শুক্রবার (জানুয়ারি ২৫) মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপাত্র জোনাথন হফম্যান জানান, আহত সেনাদের মধ্যে ৮ জনকে আমেরিকা ও ৯ জনকে জার্মানিতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া বাকি ১৭ জনের মধ্যে ১৬ জনকে ইরাকে ও একজনকে কুয়েতে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তারা আবারও নিজেদের কাজে যোগ দিয়েছেন।