।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

সোলেমানি হত্যার পর ইরানের প্রতিশোধের হুমকির প্রেক্ষিতে দেশটির ৫২টি গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক স্থাপনায় হামলার হুমকি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেই সূত্র ধরে এবার একযোগে ৫২টি অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান উড়িয়ে সতর্ক করলো যুক্তরাষ্ট্র।

মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রের উটাহ রাজ্যের হিল বিমানঘাঁটি থেকে অর্ধশতাধিক লাইটনিং টু স্টিলথ যুদ্ধবিমান উড়িয়েছে মার্কিন বাহিনী। তবে অস্ত্রশস্ত্রে পুরোপুরি সজ্জিত হলেও যুদ্ধবিমানগুলো এখনই হামলার জন্য নয়, বরং ইরানকে ভয় দেখাতেই এ মহড়ার আয়োজন করা হয়।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের এফ-৩৫এ মডেলের এসব যুদ্ধবিমানের একেকটির দাম প্রায় চার দশমিক দুই বিলিয়ন মার্কিন ডলার (৩৫ হাজার ৭০০ কোটি টাকা প্রায়)। মহড়ায় অংশ নেন ৩৮৮তম ও সংরক্ষিত ৪১৯তম ফাইটার উইংসের সদস্যরা।

৪১৯তম ফাইটার উইংসের পক্ষ থেকে এক টুইটে বলা হয়েছে, ‘এ মহড়া সার্বিকভাবে এফ-৩৫ ব্যবহারে আমাদের পাইলটদের দক্ষতার চূড়ান্ত পরীক্ষা নিয়েছে। আমরা উড়তে, লড়তে আর জিততে প্রস্তুত।’

গত বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) দিনগত রাতে ইরাকের বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হন ইরানের ক্ষমতাশালী কুদস ফোর্সের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাসেম সোলেমানি। ইরান এ হামলার কঠিন প্রতিশোধ নেয়ার প্রতিজ্ঞা করেছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প এর জবাবে পাল্টা হুমকি দিয়ে বলেছেন, ইরান হামলার চেষ্টা করলে মার্কিন বাহিনীর হাতে থাকা অত্যাধুনিক অস্ত্র দিয়ে তাদের ৫২টি লক্ষ্যবস্তুতে দ্রুত ও কঠোর হামলা করা হবে।

১৯৭৯ সালের দিকে ৫২ জন মার্কিন নাগরিককে প্রায় একবছর জিম্মি করে রাখার প্রতীক হিসেবে ইরানের ৫২টি স্থাপনা চিহ্নিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।