।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে একটি চার্চে সকালের প্রার্থনার সময় বন্দুকধারীর গুলিতে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছে। রোববার স্থানীয় সময় বেলা ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে এ গুলির ঘটনা ঘটে বলে বিবিসি জানিয়েছে। পরে চার্চেরই এক সশস্ত্র সদস্যের পাল্টা গুলিতে বন্দুকধারীরও মৃত্যু হয়।

ফোর্ট ওর্থের উপকণ্ঠে হোয়াইট সেটেলমেন্টের ওয়েস্ট ফ্রিওয়ে চার্চ অব ক্রাইস্টের এদিনের সকালের প্রার্থনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার হচ্ছিল। এর মধ্যেই বন্দুকধারী চার্চের ভেতরে একটি বেঞ্চ থেকে উঠে দাঁড়িয়ে দুই ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে তার শটগান থেকে গুলি ছোড়েন।

কাছাকাছি দাঁড়িয়ে থাকা চার্চের নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত সশস্ত্র এক সদস্য পাল্টা গুলি করলে বন্দুকধারী পড়ে যায়। ভিডিওতে চার্চের আরও অনেক সদস্যকে বন্দুকধারীর দিকে পাল্টা বন্দুক তাক করতে দেখা গেলেও, তাদের কেউ গুলি ছুড়েছিলেন কিনা, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বন্দুকধারীর গুলিতে আহত দুই ব্যক্তি পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। হামলার উদ্দেশ্য সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

হোয়াইট সেটেলমেন্টের পুলিশপ্রধান জেপি বেভারিং বন্দুকধারীকে মোকাবেলায় চার্চের নিরাপত্তা রক্ষায় নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবকদের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারে গোলাগুলির সময় চার্চের ভেতরে অবস্থানরত অসংখ্য প্রার্থনাকারীকে নিচু হয়ে বেঞ্চের পেছনে লুকিয়ে থাকতে ও আতঙ্কে চিৎকার করতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ওয়েস্ট ফ্রিওয়ে চার্চ অব ক্রাইস্টের কর্মকর্তা জ্যাক কামিংস নিউ ইয়র্ক টাইমসকে বলেছেন, বন্দুকধারীর ‘রহস্যজনক আচরণ’ চার্চের নিরাপত্তা দলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল। আগ্নেয়াস্ত্র বহনে অনুমতিপ্রাপ্ত স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়েই চার্চের নিরাপত্তা দলটি গঠন করা হয়েছিল, জানিয়েছেন তিনি।

আজ তারা অসংখ্য লোকের জীবন বাঁচিয়েছে, না হলে ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ হতো, বলেছেন কামিংস। চলতি বছর টেক্সাসে বেশ কয়েকটি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। অগাস্টে এল পাসোর ওয়ালমার্টের দোকানে গুলির ঘটনায় ২২ জন নিহত ও ২৪ জন আহত হয়েছে। একই মাসে ওডেসা-মিডল্যান্ডে হামলার ঘটনায় প্রাণ গেছে আরও ৭ জনের।