।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মৃদু শৈত্যপ্রবাহের মধ্যে কনকনে ঠাণ্ডা বাতাস উপেক্ষা করে রোববার (২৯ ডিসেম্বর) দুপুর থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করছেন রাজশাহীর পাটকল শ্রমিকরা। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) তাদের আন্দোলন গড়ালো দ্বিতীয় দিনে।

রোববার রাতভর মিলের মূল ফটকে অবস্থানের পর সোমবার সকাল থেকে তারা নানান দাবি নিয়ে আবারও বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন। রাজশাহী পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জিল্লুর রহমান জানান, তাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাদের পক্ষে আর ঘরে ফেরা সম্ভব নয়।

কেন্দ্রীয়ভাবে বৈঠক ফলপ্রসূ না হওয়ায় গত ১০ ডিসেম্বর দুপুর থেকে আন্দোলন শুরু করেন পাটকল শ্রমিকরা। পরে তাদের দাবি মেনে নেওয়ার সরকারি আশ্বাসে গত ১৪ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয়ভাবে কর্মসূচি স্থগিত করা হয়।

তাদের অভিযোগ, মজুরি কমিশনের দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলেও এখনো কার্যকর হয়নি। দাবি পূরণ না হওয়ায় রোববার থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করছেন তারা। ঘোষিত ১১ দফা দাবি আদায়ে এবার শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। রাজশাহী পাটকলের মূল ফটকের সামনে কাঁথা-বালিশ নিয়ে অনশন কর্মসূচি পালন করছেন পাটকল শ্রমিকরা। তবে শীতের কারণে পাটকল শ্রমিকদের অনেকেই ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বলেও জানান এই শ্রমিক নেতা।

এদিকে, মজুরি কমিশন বাস্তবায়নসহ ১১ দফা দাবিতে দু’সপ্তাহ পর আবারও আন্দোলনে নেমেছেন রাজশাহীর পাটকল শ্রমিকরা। রোববার (২৯ ডিসেম্বর) বিকেল ৩টার পর থেকে পাটকল ফটকের সামনে তারা জড়ো হন। বর্তমানে সেখানে বসেই তারা আন্দোলন করছেন।

জাতীয় মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারি (পিপিপি) সিদ্ধান্ত বাতিল, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচ্যুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করছেন পাটকল শ্রমিকরা।