।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

 ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের দরজা পুরুরা গ্রামে শিল্পি বেগম (২২) নামের এক গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা করেছে তার স্বামী রানা শেখ। নিহত গৃহবধূ দরজা পুরুরা গ্রামের শাহজাহান মোল্যার কন্যা।

শুক্রবার রাতে পুলিশ বাড়ীর পাশের মাঠের মধ্যে থেকে গলা কাটা অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে। এ ঘটনায় আটক করা হয়েছে রানা শেখের সহযোগি তুহিন শেখ নামে একজনকে। শিল্পি বেগম ফরিদপুরের জুট মিল শ্রমিক ছিলেন। ৫ বছর আগে মোকসেদপুর উপজেলার গারলগাতি গ্রামের রানা শেখের সাথে শিল্পির বিয়ে হয়। এ দম্পত্তির লামিয়া নামের তিন বছরের এক শিশু কন্যা রয়েছে।

সালথা থানার ওসি মোঃ আলী জিন্নাহ জানান, শুক্রবার রাতে মাঠের মধ্যে থেকে গলা কাটা অবস্থায় শিল্পির লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের স্বামী রানা শেখ গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। এ ঘটনায় রানার এক সহযোগী পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা আটক করে পুলিশে দেয়। এ ঘটনায় স্বামী রানা শেখকে প্রধান ও তার সহযোগী তুহিন সেখকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে নিহতের পিতা।