।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মোহাম্মদ উল্লাহ খান ওরফে মোহাম্মদ আলীক্যাসিনো কেলেঙ্কারির কারণে যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়ার ঘনিষ্ঠ সহযোগী মোহাম্মদ উল্লাহ খান ওরফে মোহাম্মদ আলীকে (৪২) গ্রেফতার করেছে সিআইডির অর্গানাইজড ক্রাইম বিভাগের ইকোনমিক ক্রাইম স্কোয়াড। মঙ্গলবার (২৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর কমলাপুর রেল স্টেশন এলাকা থে‌কে তাকে আটক করা হয়। বুধবার তার বিরুদ্ধে মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে মামলা করা হয়েছে।

বর্তমানে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সিআইডির মিডিয়া উইং কর্মকর্তা, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার শারমিন জাহান বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) এ তথ্য জানিয়েছেন।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) জানায়, ম‌তি‌ঝিলের ইয়ংমেন্স ক্লা‌বে অবৈধ ক্যা‌সি‌নো পরিচালনাকারী আসা‌মি খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়ার ঘ‌নিষ্ঠ সহযোগী হি‌সা‌বে মোহাম্মদ উল্লাহ খান দীর্ঘ‌দিন ধ‌রে কাজ ক‌রে আস‌ছিল। খা‌লেদ মাহমুদ ভূঁইয়া গ্রেফতার হওয়ার পর পলাতক ছিল। তার অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড থেকে আ‌য়ের হিসাব প‌রিচালনা ও রক্ষণা‌বেক্ষ‌ণ ক‌র‌তো মোহাম্মদ উল্লাহ। খালেদ মাহমুদের মা‌লিকানাধীন ভূঁইয়া অ্যান্ড ভূঁইয়া ডে‌ভেলপার লিমিটেডের জিএম হি‌সে‌বে নি‌য়ো‌জিত ছিল।

শারমিন জাহান জানান, মোহাম্মদ উল্লাহকে ২৫ ডিসেম্বর আদাল‌তে সোপর্দ করা‌ হ‌য়। সেখানে খা‌লে‌দের টেন্ডারবা‌জিসহ যাবতীয় অপরাধলব্ধ আ‌য়ের উৎস, গন্তব্য ও ব্যবহার সম্প‌র্কে ফৌজদারি কার্য‌বি‌ধির ১৬৪ ধারায় স্বীকা‌রো‌ক্তিমূলক জবানব‌ন্দি দেয় মোহাম্মদ উল্লাহ। তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।