।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

সারাদেশে আপতত শীতের দাপট কিছুটা কমেছে। তবে ডিসেম্বরের শেষে শীতের তীব্রতা বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। শীত কমলেও ঘনকুয়াশায় ছেঁয়ে আছে চারপাশ। বেলা ১১-১২টার আগে সূর্যের দেখা মিলছে না। বুধবার (২৫ ডিসেম্বর)  দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল তেঁতুলিয়ায় ৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, এ মাসের ২৫-২৬ তারিখের দিকে সারাদেশে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে এবং হালকা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তখন আবারও তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে এবং ২৭-২৮ তারিখের দিকে আরও একটি মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এটি ২-৩ দিন অব্যাহত থাকবে।

তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, বুধবার সকালের ছবিআবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের উত্তর, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। দক্ষিণাঞ্চলের জেলা ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, বরিশাল, খুলনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও রাজশাহীতে শীতের বেশ প্রভাব রয়েছে। সারাদেশে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত মাঝারি থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে। আগামী ২৪ ঘণ্টায আকাশ অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলাসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে। আবহাওয়ার সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়েছে, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশে পশ্চিমাংশ পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।