।। বিডিনিউজ, ঢাকা ।।

ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএমে ভোট হলে ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন ‘সুষ্ঠু হবে না’ বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এ বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

ফখরুল বলেন, “তারা (নির্বাচন কমিশন) বলেছে যে, ইভিএমের মাধ্যমে সিটি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। যেটা (ইভিএম) সম্পূর্ণভাবে ক্রটিযুক্ত এবং আমরা এটাকে প্রত্যাখান করেছি। আমরা বলেছি যে, এটা সঠিক হবে না। এই ইভিএমে জনগণের রায় প্রতিফলিত হবে না।”

আগামী ৩০ জানুয়ারি ভোটের দিন রেখে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে জানিয়েছে, সবকেন্দ্রেই ভোটগ্রহণ হবে ইভিএমে। 

ফখরুল বলেন, “আমরা মনে করি যে, তাতে নির্বাচন সুষ্ঠু হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম।”

বরাবরই ইভিএম নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসা বিএনপি নেতাদের সন্দেহ, যন্ত্রে ভোটগ্রহণ হলে ‘ম্যানিপুলেট’ করার এবং ফলাফল ‘নিয়ন্ত্রণ’ করার সুযোগ থেকে যাবে। তবে নির্বাচন কমিশন বরাবরই বলে এসেছে, ইভিএমে বরং কারচুপির সুযোগ কমবে।

সংশয় নিয়েও ঢাকার সিটি নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণের কারণ ব্যাখ্যা করে মির্জা ফখরুল বলেন, “আমরা খুব স্পষ্ট করে বলেছি যে, বর্তমান সরকারের অধীনে, বর্তমান নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় কোনো নির্বাচনই সুষ্ঠু ও অবাধ হতে পারে না। জনগণের যে রায়, সেই রায়টা প্রতিফলিত হবে না। তারপরও যেহেতু আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি, সেজন্য আমরা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।”

নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।”