Loading...
উত্তরকাল > বিস্তারিত > খেলা > ১৭ বছর পর বার্সা-রিয়াল গোলশূন্য

১৭ বছর পর বার্সা-রিয়াল গোলশূন্য

পড়তে পারবেন 2 মিনিটে

 ।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

অসংখ্য সুযোগ এলো দুই দলের খেলোয়াড়দের সামনে। এর একটিও কাজে লাগাতে পারলেন না বার্সেলোনার লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস কিংবা রিয়াল মাদ্রিদের করিম বেনজেমা, গ্যারেথ বেলরা। তাদের ব্যর্থতায় ড্র হলো বছরের সবশেষ ক্লাসিকো। লা লিগায় বুধবার রাতে লিগের শীর্ষ দুই দলের লড়াই শেষ হয়েছে গোলশূন্য ড্রয়ে। ২০০২ সালের পর এই প্রথম বার্সেলোনা-রিয়ালের লড়াইয়ে কোনো গোল হলো না।

চির প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে ক্লাব রেকর্ড টানা সাত ম্যাচ ধরে অপরাজিত রইলো বার্সেলোনা। পেপ গুয়ার্দিওলার দলের রেকর্ড স্পর্শ করল এরনেস্তো ভালভেরদের দল। কাম্প নউয়ে লক্ষ্যে প্রথম শট নেয় রিয়াল। করিম বেনজেমার দুর্বল শট সহজেই নিয়ন্ত্রণে নেন মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

একের পর এক আক্রমণে বার্সেলোনাকে কাঁপিয়ে দেয় জিদানের শিষ্যরা। সপ্তদশ মিনিটে এগিয়েও যেতে পারতো তারা। কর্নার থেকে কাসেমিরোর হেড গোললাইন থেকে ফিরিয়ে স্বাগতিকদের ত্রাতা জেরার্দ পিকে। ২৫তম মিনিটে বেনজেমার শট পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন টের স্টেগেন। পরমুহূর্তে ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন কাসেমিরোর দূরপাল্লার শট।

খেলার ধারার বিপরীতে ৩১তম মিনিটে সুযোগ এসে যায় বার্সেলোনার সামনে। থিবো কর্তোয়া ঝাঁপিয়ে একটি আক্রমণ কোনোমতে ঠেকালে বল পেয়ে যান মেসি। তার বুলেট গতির শট গোললাইনের সামনে থেকে ফিরিয়ে দেন নিজের ৪৩তম ক্লাসিকোতে খেলা সের্হিও রামোস। দশ মিনিট পর মেসি জাদুতে এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ পেয়ে যায় বার্সেলোনা। অধিনায়কের দুর্দান্ত চিপে জর্দি আলবার শট একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি।

৬০তম মিনিটে খেলার ধারার বিপরীতে সুযোগ পেয়ে যান মেসি। অঁতোয়ান গ্রিজমানের চমৎকার পাসটা নিয়ন্ত্রণেই নিতে পারেননি তিনি। পরমুহূর্তে লুইস সুয়ারেসের শট ফিরিয়ে দেন রামোস।

আট মিনিট পর প্রতি-আক্রমণ থেকে দারুণ সুযোগ আসে গ্যারেথ বেলের সামনে। খুব কাছ থেকে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি ওয়েলস ফরোয়ার্ড। চার মিনিট পর ফ্রেংকি ডি ইয়ংয়ের শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান কর্তোয়া। ৭২তম মিনিটে বল জালে পাঠিয়েছিলেন বেল। ভিএআরের সহায়তা নিয়ে গোল দেননি রেফারি। দুই মিনিট পর ডি-বক্সের ভেতর থেকে অনেক ওপর দিয়ে মেরে সুযোগ হাতছাড়া করেন সুয়ারেস।

শেষের দিকে আনসু ফাতি মাঠে আসার পর গতি বাড়ে বার্সেলোনার আক্রমণে। কিন্তু জালের দেখা পায়নি ভালভেরদের শিষ্যরা। শেষের দিকে রক্ষণাত্মক হয়ে পড়া রিয়াল প্রতি-আক্রমণ থেকেও পায়নি কোনো সাফল্য। ১৭ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই রয়েছে বার্সেলোনা। সমান পয়েন্ট নিয়ে তাদের পরেই রয়েছে স্পেনের সফলতম দল রিয়াল।

সবশেষ আপডেট

উত্তরকাল

বিশ্বকে জানুন বাংলায়

All original content on these pages is fingerprinted and certified by Digiprove
%d bloggers like this: