।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহীর একটি স্কুলে গোপনে বৈঠকের সময় জামায়াতে ইসলামের ১০ জন নেতাকর্মীকে আটক করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) দাবি, আগামীকাল (১১ ডিসেম্বর) আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে রাজশাহীর টিপু রাজাকারের রায় ঘোষণা করা হবে। এই রায়কে কেন্দ্র করে নাশকতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে নগরীর মসজিদ মিশন বড়কুটি শাখায় মঙ্গলবার দুপুরে জামায়াতে ইসলামের একদল নেতাকর্মী গোপন বৈঠকে মিলিত হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে স্কুলে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

জামায়াতে ইসলামের আটককৃ নেতাকর্মীরা হলেন, মহানগর জামায়াতের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম (৫০), প্রচার সম্পাদক শাহাদাত হোসেন (৪৫), বোয়ালিয়া থানার আমির আমিনুল ইসলাম (৬০), রাজপাড়া থানার নায়েবে আমির কামরুজ্জামান (৪৫), রাজপাড়া থানার সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন (৪১), মহানগরের সুরা সদস্য সিরাজুল ইসলাম (৪৮), মহানগরের শ্রমিক কল্যাণ সভাপতি আ. সামাদ (৫০), মহানগরের সদন্য মাহফুজুল্লাহ জহির (৪৭), সদস্য আরিফিন মৃধা (৩১) ও সদস্য তহিদুল ইসলাম (৪৫)।

আরএমপি’র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, অভিযানের সময় ঘটনাস্থল থেকে আরো ১০-১২ জন নেতাকর্মী পালিয়ে যায়। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু জিহাদী বই উদ্ধার করা হয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।