Loading...
উত্তরকাল > বিস্তারিত > খেলা > বিশ্ব ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় নিষিদ্ধ রাশিয়া

বিশ্ব ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় নিষিদ্ধ রাশিয়া

পড়তে পারবেন < 1 মিনিটে

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

সব ধরনের বৈশ্বিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা থেকে আগামী চার বছরের জন্য রাশিয়াকে নিষিদ্ধ করেছে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ডব্লিউএডিএ)। ফলে ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিক ও ২০২২ সালে কাতার ফুটবল বিশ্বকাপে খেলতে পারবে না দেশটি।

ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির কার্যনির্বাহী সভায় সর্বসম্মতভাবে সোমবার এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

২০২২ সালে বেইজিংয়ের শীতকালীন অলিম্পিকেও অংশ নিতে পারবে না রাশিয়া। তবে ডোপ কেলেঙ্কারিতে জড়িত নন এমন অ্যাথলেটরা নিজেদের জড়িত না থাকার প্রমাণ দিতে পারলে নিরপেক্ষ পতাকা নিয়ে অংশ নিতে পারবেন অলিম্পিকে।

২০১৫ সাল থেকে অ্যাথলেটিক্সে দেশ হিসেবে রাশিয়ার অংশ নেয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার পাইওংচাংয়ে ২০১৮ সালের শীতকালীন অলিম্পিকে ১৬৮ জন রুশ অ্যাথলেট নিরপেক্ষ পতাকা নিয়ে অংশ নিয়েছিলেন। ২০১৪ সালে সোচিতে হওয়া আগের শীতকালীন অলিম্পিকে পদক তালিকার শীর্ষে ছিল রাশিয়ার অ্যাথলেটরা। এরপরই তাদের বিরুদ্ধে ডোপিংয়ের অভিযোগ ওঠে।

২০১৬ সালে রিও অলিম্পিকের আগে মস্কোর পরীক্ষাগারেই রাশিয়ার অ্যাথলেটদের ডোপিংয়ের প্রমাণ মেলে। এরপর তাদেরকে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়।

মস্কোর বিরুদ্ধে মিথ্যা উপাত্ত দিয়ে গবেষণাগারের তথ্যে গড়মিল করার প্রমাণ মেলার পর এই শাস্তির সিদ্ধান্ত নিল ডব্লিউএডিএ। রুশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়া অ্যাথলেটদের তথ্য মুছে দেয়ার প্রমাণ পেয়েছে সংস্থাটি।

ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি জানিয়েছে, নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আবেদন করার জন্য রাশিয়া ২১ দিন সময় পাবে। যদি তারা আবেদন করে, তাহলে আবেদনটি পাঠানো হবে ক্রীড়ার সর্বোচ্চ আদালত ‘কোর্ট অব আরবিট্রেশন ফর স্পোর্টসে (সিএএস)’।

তবে এই নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ২০২০ সালের ইউরো ফুটবল প্রতিযোগিতায় খেলতে পারবে রাশিয়া।

সবশেষ আপডেট

উত্তরকাল

বিশ্বকে জানুন বাংলায়

All original content on these pages is fingerprinted and certified by Digiprove
%d bloggers like this: