।। শোবিজ প্রতিবেদক ।।

নিজেদের যাত্রা শুরুর পারফরম্যান্সেই আশার আলো জ্বাললো নওগাঁর নতুন সাংস্কৃতিক সংগঠন ত্রিশূল। সোমবার কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে শেষ হওয়া ওশান ড্যান্স ফেস্টিভ্যালে অংশ নিয়ে সংগঠনটি জানান দিয়েছে তার আগমনী বার্তা। বিশ্বব্যাপী নৃত্যশিল্পীদের সংগঠন ‘দ্য ওয়ার্ল্ড ড্যান্স এলায়েন্স- এশিয়া প্যাসিফিক’-এর উদ্যোগে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হয়।

‘সাহিত্য ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে নওগাঁর রয়েছে এক বিশেষ তাৎপর্যময় বৈশিষ্ট্য। বাংলাদেশের আবহমান সাহিত্য ও সংস্কৃতির একই প্রবাহের ক্ষুদ্র অংশ হয়েও এর স্বাতন্ত্র্য রয়েছে সৃষ্টির অবয়বে।জেলার মধুইল, পোরশা,সাপাহার, নিয়ামতপুর, ধামইরহাট অঞ্চলের উঁচু নীচু দীঘল ফসলের মাঠ বেয়ে দিনান্তে শ্রম-কিণাংক শরীরে অস্তায়মান সূর্য্যের রাঙা আবির মেখে আজো সাঁওতাল তরুণ তরুণীরা মোষের পিঠে, পায়ে হেঁটে, বাঁশী মুখে, খোঁপায় বুনোফুল গুজে ঘরে ফেরে। যাত্রা, লোকগান, গ্রাম্য কবিতা, পল্লী এলাকার বিয়ের গীত নওগাঁ জেলায় প্রচলিত আছে বহু শতাব্দী ধরে। এসব আঞ্চলিক গীতে নওগাঁর আবহমান কালের লোক-সংস্কৃতির পরিচয় ফুটে উঠে স্পষ্টভাবে। কালের পরিক্রমায় এ শিল্প সংস্কৃতি যেন বিস্তৃতির অতল গহ্বরে বিলীনের দোরগোড়ায়।বাঁচানোর জন্য দরকার এ ধরনের সাংস্কৃতিক সংগঠনের।’ সেই প্রয়োজনীয়তার বোধ থেকেই ত্রিশূলের যাত্রা শুরু বলে জানান সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সংস্কৃতিকর্মী তৃণা মজুমদার।

তিনি বলেন, ‘ত্রিশূল’ সাংস্কৃতিক চর্চার মধ্য দিয়ে সামাজিক পরিবর্তনমূলক কার্যক্রমেও অংশ নেবে। ত্রিশূলের তিনটি ফলা যেমন জীবনের ত্রিগুণকে উপস্থাপন করে, তেমনি অতীত-বর্তমান ধারণ করে ভবিষ্যতে নওগাঁসহ সারাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে ভূমিকা রাখবে ‘ত্রিশূল’।