।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

 কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণ রেখায় পাল্টাপাল্টি গোলাগুলিতে পাঁচ ভারতীয় সেনা নিহতের পাকিস্তানি দাবিকে ‘কল্পিত’ আখ্যা দিয়ে উড়িয়ে দিয়েছে দিল্লি। বৃহস্পতিবার জম্মু-কাশ্মিরের নওগাম সেক্টরে সীমান্ত এলাকায় ৫ ভারতীয় সেনাকে হত্যার দাবি করে পাকিস্তান। পাল্টাপাল্টি গোলাবর্ষণে নিজেদের ৪ সেনা নিহত হয়েছে বলেও দাবি করে তারা। ভারত তিন পাকিস্তানি সেনাকে হত্যার কথা স্বীকার করলেও গোলাগুলিতে তাদের নিজেদের সেনা নিহত হওয়ার কথা অস্বীকার করেছে।

 ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর ভারত-পাকিস্তান তিনটি যুদ্ধের মধ্যে দুটি অনুষ্ঠিত হয়েছে কাশ্মির ইস্যুতে। গত ৫ আগস্ট (সোমবার) ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপি নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। এর প্রতিবাদে ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক হ্রাস করাসহ ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনারকে বহিষ্কার করেছে পাকিস্তান। দুই দেশের সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। কাশ্মির সীমান্তে চলছে টানটান উত্তেজনা। একইসঙ্গে সব ধরনের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য চুক্তি স্থগিত ও ভারতের স্বাধীনতা দিবসকে কালো দিবস হিসেবে পালন করেছে পাকিস্তান।

ভারত যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করছে অভিযোগ করে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র আসিফ গফুর বলেন, নয়া দিল্লি সরকার জম্মু-কাশ্মির পরিস্থিতি থেকে ‘দৃষ্টি অন্য দিকে সরাতে’ চেষ্টা চালাচ্ছে।

টুইটবার্তায় গফুর লিখেছেন, ‘জম্মু-কাশ্মির পরিস্থিতি থেকে দৃষ্টি সরাতে ভারতীয় সেনাবাহিনী সীমান্তরেখায় গুলির ঘটনা বাড়িয়েছে। এতে ৩ পাকিস্তানি সেনা শহীদ হয়েছেন। পাকিস্তানি সেনাবাহিনী যথাযথভাবে পাল্টা জবাব দিয়েছে। ৫ ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছে, অনেকেই আহত হয়েছে, বাংকার ধ্বংস করা হয়েছে। থেমে থেমে গুলি বিনিময়ের ঘটনা অব্যাহত রয়েছে।

এক বিবৃতিতে ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রতিবেশী দেশের এই অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি করে উড়িয়ে দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের দাবি কল্পিত। জম্মু-কাশ্মিরের কৃষ্ণঘাঁটিতে যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করেই চলেছে পাকিস্তান। ভারতীয় সেনাবাহিনী যথাযথভাবে এর পাল্টা জবাব দিয়েছে। ভারতীয় সেনা সূত্রের দাবি, একই দিনে উরি ও রাজৌরি সেক্টরে যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী। ভারতীয় সেনাবাহিনী এর যথাযথ জবাব দিয়েছে।