।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

কোপা আমেরিকার রেফারিংয়ের প্রতি অভিযোগের আঙুল তুলে বেশ ভালো ঝামেলাই পড়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। সেমিফাইনাল থেকে আর্জেন্টিনা ছিটকে পড়ার পর ক্ষোভ প্রকাশ করে আয়োজক ব্রাজিল এবং ম্যাচ রেফারিদের ‘দুর্নীতিপরায়ণ’ অভিযুক্ত করে এবার শাস্তির মুখে পড়তে হলো মেসিকে।

শুধু ম্যাচ রেফারিদের কথা শুনিয়ে ক্ষান্ত হননি, পাশাপাশি প্রশ্ন তুলেছেন ল্যাটিন আমেরিকার ফুটবল কর্তৃপক্ষ কনমেবলের দায়িত্ববোধ নিয়েও। যার ফলশ্রুতিতে পড়তে হয়েছে শাস্তির মুখে। শাস্তি যে তিনি পাবেন তা আগেই আন্দাজ করা গেলেও এবার সেই শাস্তির ঘোষণাই এলো। তবে অল্পতেই বেঁচে গেছেন মেসি।

পাঁচবারের ‘ব্যালন ডি’অর’জয়ী খেলোয়াড়ের ওপর এতটা কঠোর হয়নি কনমেবল। এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে তাকে, সঙ্গে ১৫০০ ডলার জরিমানা। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ২০২২ বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে আর্জেন্টিনার হয়ে খেলতে পারবেন না মেসি। মেসির পাশাপাশি শাস্তি পেয়েছেন আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান ক্লদিও তাপিয়াও। ফিফার অফিসিয়াল প্রতিনিধি পদ থেকে আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধানকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাপিয়াও কোপা আমেরিকা চলার সময় কনমেবলের সমালোচনাও মেতে উঠেছিলেন।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বাংলানিউজ
All Rights Reserved