Loading...
উত্তরকাল > বিস্তারিত > বিদেশ > প্রথম চাঁদে হাঁটার মূল ফুটেজ হারিয়েছে নাসা

প্রথম চাঁদে হাঁটার মূল ফুটেজ হারিয়েছে নাসা

পড়তে পারবেন 1 মিনিটে

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

সামনের সপ্তায় ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মিশন অ্যাপোলো ১১-এর ৫০ বর্ষপূর্তি উদযাপন করবে নাসা। ওই মিশনের মাধ্যমেই চাঁদের বুকে প্রথমবার পা রাখে মানুষ।

অ্যাপোলো ১১ মিশনে চাঁদের বুকে হাঁটার প্রথম ভিডিও ফুটেজ বিশ্ব জুড়ে সম্প্রচার করেছিলো নাসা। বর্ষপূর্তির আগে ওই ফুটেজের মূল ডেটা টেইপ হারিয়েছে বলে দাবি করেছে মহাকাশ গবেষণা মার্কিন সংস্থাটি– খবর ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিররের।

নাসা’র পক্ষ থেকে বলা হয়, “নাসা অনুসন্ধান করেছে কিন্তু অ্যাপোলো ১১-এর বেশ কিছু অরিজিনাল ডেটা টেইপ পাওয়া যায়নি। ‘অরিজিনাল’ বলা হচ্ছে কারণ এগুলো সরাসরি চাঁদ থেকে ট্রান্সমিট করে রেকর্ড করা হয়েছিল।”

“বিস্তৃত পরিসরে আর্কাইভ অনুসন্ধান করা হয়েছে এবং এই সিদ্ধান্তে আসা হয়েছে যে, এমনটা হতে পারে প্রকল্প ব্যবস্থাপক মনে করেছেন এই টেইপগুলো আর রাখার দরকার নেই কারণ সব ভিডিও এবং ডেটা অন্য জায়গায় রেকর্ড রয়েছে এবং সেগুলো মুছে ফেলা হয়েছে ও পুনরায় ব্যবহার করা হয়েছে।”

নাসা’র দাবি ওই টেইপগুলোর ডেটা ম্যানড স্পেসক্রাফট সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

“ভিডিওটি অন্যান্য জায়গায়ও রেকর্ড করা হয়েছে, অ্যাপোলো ১১-এ চাঁদের হাঁটার কোন ভিডিও ফুটেজ হারায়নি।”

সম্প্রতি নাসা’র এক শিক্ষানবীশ একটি টেইপকে ‘হারানো’ অ্যাপোলো ১১ টেইপ বলে বিক্রি করেন। এতেই টেইপটি হারানোর খবর সামনে আসে।

গ্রে জর্জ নামের ওই ব্যক্তির দাবি ১৯৭৬ সালে সরকারি নিলাম থেকে প্রায় ২০০ মার্কিন ডলারে তিনি টেইপটি কিনেছেন।

অন্যদিকে নাসা বলছে জর্জের টেইপে এমন কিছু নেই যা নাসা’র কাছেও নেই।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, “টেইপটির যে বর্ণনা দেওয়া হয়েছে তা সত্যি হলে এটি হিউস্টন থেকে ধারণ করা একটি দুই ইঞ্চি টেইপ, যা বাণিজ্যিক টেলিভিশনে প্রচার করার জন্য কনভার্ট করা হয়েছে এবং এতে এমন কোনো উপাদান নেই যা নাসা’র কাছে মজুদ নেই।”

সবশেষ আপডেট

উত্তরকাল

বিশ্বকে জানুন বাংলায়

All original content on these pages is fingerprinted and certified by Digiprove
%d bloggers like this: