।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

বোলারদের ওপর শুরু থেকে চড়াও হয়ে দলকে ভালো শুরু এনে দিয়েছেন রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল। দুই ওপেনারের সৌজন্যে প্রথম পাওয়ার প্লেতে ভারত পেয়েছে টুর্নামেন্টে নিজেদের সর্বোচ্চ রান।

১০ ওভার শেষে ভারতের স্কোর ৬৯/০। ৯ রানে তামিম ইকবালের হাতে জীবন পাওয়া রোহিত শর্মা ৩৮ ও রাহুল ২৮ রানে ব্যাট করছেন। এই সময়ে তাদের ব্যাট থেকে এসেছে আটটি চার ও দুটি ছক্কা।

পাওয়ার প্লেতে ৩ বোলার ব্যবহার করেছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ অধিনায়ক ২ ওভারে দিয়েছেন ২০ রান। ৪ ওভারে ২৫ রান দিয়েছেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। একমাত্র সুযোগটি তৈরি করা মুস্তাফিজুর রহমান ৪ ওভারে দিয়েছেন ২৩ রান।

৫০ বলে পঞ্চাশ স্পর্শ করে রোহিত ও রাহুলের জুটির রান। এই সময়ে তাদের ব্যাট থেকে এসেছে পাঁচটি চার ও দুটি ছক্কা।

৯ ওভার শেষে ভারতের স্কোর ৫৯/০। রোহিত ৩৩ ও রাহুল ২৩ রানে ব্যাট করছেন।  

রোহিতকে জীবন দিলেন তামিম

আসরে তিন সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মাকে জীবন দিলেন তামিম ইকবাল। সীমানায় ক্যাচ মুঠোয় জমাতে পারলেন না তিনি।

বোলিংয়ে এসে প্রথম ওভারেই উইকেট পেতে পারতেন মুস্তাফিজুর রহমান। বাঁহাতি এই পেসারকে শর্ট বাউন্ডারি দিয়ে ছক্কা হাঁকাতে চেয়েছিলেন রোহিত। টাইমিং করতে পারেননি ভারতীয় ওপেনার। ডিপ স্কয়ার লেগ থেকে দৌড়ে বলের নিচে গিয়েছিলেন তামিম। কিন্তু বুক উচ্চতার ক্যাচ মুঠোয় জমাতে পারেননি। সে সময় ৯ রানে ছিলেন রোহিত।

মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনের করা আগের ওভারে ডিপ স্কয়ার লেগে সাকিব আল হাসানের মিস ফিল্ডিংয়ে বাউন্ডারি পেয়েছিলেন লোকেশ রাহুল। 

ভারত দলে ফিরলেন ভুবনেশ্বর, কার্তিক

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে যাওয়া দলে দুটি পরিবর্তন এনেছে ভারত। সেই ম্যাচে মন্থর ব্যাটিং করা কেদার যাদব জায়গা হারিয়েছেন একাদশে। তার জায়গায় দলে এসেছেন দিনেশ কার্তিক।

এজবাস্টনের এক পাশের ছোট সীমানার কথা বিবেচনা করে একজন স্পিনার কমিয়ে পেসার বাড়িয়েছে ভারতও। বসানো হয়েছে বাঁহাতি রিস্ট স্পিনার কুলদীপ যাদবকে, একাদশে ফিরেছেন পেসার ভুবনেশ্বর কুমার।

ভারত: বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, দিনেশ কার্তিক, হার্দিক পান্ডিয়া, রিশাব পান্ত, মহেন্দ্র সিং ধোনি, যুজবেন্দ্র চেহেল, ভুবনেশ্বর কুমার, জাসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ শামি।

চোটে ছিটকে গেলেন মাহমুদউল্লাহ

কাফ মাসলের চোটে ছিটকে গেলেন মাহমুদউল্লাহ। অভিজ্ঞ এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের জায়গায় দলে এসেছেন সাব্বির রহমান।     

এজবাস্টনের এক পাশের ছোট সীমানার কথা বিবেচনা করে একজন স্পিনার কমিয়ে বাড়ানো হয়েছে পেসার। বসানো হয়েছে অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজকে, একাদশে ফিরেছেন পেসার রুবেল হোসেন। বাংলাদেশ খেলছে চার পেসার নিয়ে। 

বাংলাদেশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, রুবেল হোসেন, মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুস্তাফিজুর রহমান।

টস হেরে বোলিংয়ে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিং নিয়েছেন বিরাট কোহলি। ব্যবহৃত পিচ ভেঙে যাওয়ার আগে যত বেশি সম্ভব রান চান ভারত অধিনায়ক । বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা জানান, টস জিতলে ব্যাটিং নিতেন তিনিও।

“ভারতের বিপক্ষে প্রথমে বোলিং করাটা খারাপও নয়। কারণ, ওরা লক্ষ্য তাড়া করতে পছন্দ করে। এটা আমাদের বাঁচা-মরার ম্যাচ। প্রত্যেক বিভাগে আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলতে হবে।”

বাঁচামরার ম্যাচে জয়ের আত্মবিশ্বাস

ভারতের বিপক্ষে হারলেই বিশ্বকাপ স্বপ্নের মৃত্যু। জিতলে টিকে থাকবে আশা; সমীকরণ তবুও অনেক কঠিন। এই কঠিন পথে হেঁটেই আনন্দের ঠিকানা খুঁজে নিতে চায় বাংলাদেশ।

বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে ভারতের বিপক্ষে মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে তিনটায়।

ভারত এবারের টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট। শক্তি-সামর্থ্যে এগিয়ে অনেকটাই। ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমি-ফাইনালে এই মাঠেই ভারতের কাছে উড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। গত বছর এশিয়া কাপে তাদের কাছে বাংলাদেশ হেরেছে দুইবার।

তবে দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেলে অনেক সময়ই বেরিয়ে আসে সেরাটা। মরিয়া পরিস্থিতি অনেক সময় খুঁজে নেয় জয়ের পথ। আশায় বুক বাঁধছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। নিজেদের সেরাটা খেললে ভারতকে হারানো সম্ভব, বিশ্বাস অধিনায়কের।