।। শোবিজ প্রতিবেদন ।।

সাইফ চন্দনের চলচ্চিত্র ‘আব্বাস’। নীরব-সাবা অভিনীত এই চলচ্চিত্রটি সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পেয়েছে গেল সপ্তাহে। জানা গেছে, ৫ জুলাই ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে দেশের বেশিরভাগ প্রেক্ষাগৃহে।

তবে এসব পুরনো খবরের সঙ্গে শনিবার (২২ জুন) যুক্ত হলো নতুন কিছু। নতুন বলতে, ভিন্ন কিছু। ‘আব্বাস’ নির্মাতা সাইফ চন্দন জানান, এবারই প্রথম দেশের কোনও চলচ্চিত্র যুক্ত হলো ‘জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯’-এর সঙ্গে।

তিনি বলেন, মানুষের যে কোনও বিপদে ৯৯৯ হেল্প ডেস্কের সেবার কথা এরমধ্যে আমরা অনেকেই জেনেছি। আবার অনেকেরই এই বিষয়টি অজানা। আমি মনে করি মানুষের জন্য এটা অসাধারণ এক বিপদের বন্ধু। সেই সেবাটির সঙ্গে এবার যুক্ত হলো আমাদের ‘আব্বাস’। যার ফলে আমাদের ছবির প্রচারণার মাধ্যমে এই জাতীয় সেবার বিষয়টিও মানুষকে জানাবো। যাতে মানুষ, যে কোনও বিপদে ৯৯৯ নম্বরে ডায়াল করে সাহায্য পেতে পারে।

এদিকে ‘আব্বাস’ টিমের সঙ্গে ‘৯৯৯’ সেবার চুক্তি প্রসঙ্গে জাতীয় জরুরি সেবা বিভাগের পুলিশ সুপার মো. তবারক উল্লাহ বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ জনগণকে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস এবং অ্যাম্বুলেন্স সেবা দিয়ে যাচ্ছে। বহুল জনপ্রিয় এই সেবা মাধ্যমটির সঙ্গে ‘আব্বাস’ চলচ্চিত্রটি যুক্ত হয়েছে। আপনারা ‘আব্বাস’ চলচ্চিত্রের সঙ্গে থাকুন। পাশাপাশি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর সেবা নিন।

ন্যাশনাল হেল্প-ডেস্ক- এর ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে প্রশ্ন শোনা যায়, ‘কিভাবে সহযোগিতা করতে পারি?’ বাংলাদেশ পুলিশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে ২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর ‘৯৯৯’ সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

এদিকে ‘আব্বাস’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে জুটি বেঁধে প্রথমবার সিনেমার পর্দায় আসছেন চিত্রনায়ক নীরব ও নায়িকা সোহানা সাবা। ছবিটি প্রসঙ্গে নায়ক নীরব দাবি করলেন, এর গল্প ও ভিন্ন লুক দর্শকদের আলাদা স্বাদ দেবে।

 ‘আব্বাস’ নামের এক যুবকের বেড়ে ওঠা ও সংগ্রামকে উপজীব্য করে সিনেমাটির কাহিনি সাজানো হয়েছে। ছেলেটির জীবনে প্রেম নিয়ে আসে এমন একটি মেয়ে, যাকে অক্সিজেনের মতো অপরিহার্য মনে করেন আব্বাস। যেখানে আব্বাস চরিত্রে নীরব হোসেন আর অক্সিজেন অর্থাৎ ওটু নাম থাকছে সোহানা সাবার। এতে আরও অভিনয় করেছেন সূচনা আজাদ, জয়রাজসহ অনেকে।