।। নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী ।।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার দেশের প্রশাসন ব্যবস্থা, আর্থ-সামজিক অবস্থা, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সেবাসহ সার্বিক ক্ষেত্রে উন্নয়নে কাজ করছে। প্রচলিত জায়গা থেকে বেরিয়ে এসে প্রধানমন্ত্রী দেশকে এমন এক জায়গায় নিয়ে এসেছেন, যা পৃথিবীর অনেক দেশকে ছাড়িয়ে বিশ্বের বিস্ময় হয়েছে। আগামী ৫ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে ইনশাল্লাহ।

মঙ্গলবার (১৮ জুন) দুপুরে নগর ভবনের সিটি হলরুমে ৬৮তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রশিক্ষণার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন মেয়র।

লিটন বলেন, স্বাধীনতার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাত ধরে বাংলাদেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু দুভার্গ্য আমাদের বাঁচতে দেয়া হলো না। তারপর ৭৫ পরবর্তী ২১ বছর সময় নষ্ট হলো। এই ২১ বছর মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সবাইকে দমিয়ে রাখা হলো। আমাদের দেশের জন্য কাজ করতে দেয়া হয়নি। পরে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা পথে পথে ঘুরে মানুষকে বোঝাতে সক্ষম হলে তিনি দেশের জন্য কিছু করতে পারেন।

মেয়র আরো বলেন, এই দেশ আমাদের সকলের। সবাই মিলে বাংলাদেশকে গড়তে হবে। প্রশাসন হতে হবে জনমুখী-গণমুখী। দেশের ভালোর জন্য প্রয়োজনে আমাকে আমার সব দিতে হবে-এমন মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। দেশের কল্যাণে কাজ করতে হবে।

মেয়র বলেন, ২০১৬ সালে দূষণ কমানোয় বিশ্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল রাজশাহী। এটা ধরে রাখতে চাই এবং আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আর এটি সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দিতে চাই।

মেয়র আরো বলেন, রাজশাহীর উন্নয়নে মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করা হচ্ছে। চায়নার বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান পাওয়ার চায়না মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করছে। এই মাস্টারপ্ল্যান হবে বাংলাদেশের রোল মডেল। ৫০ বছর মেয়াদি মাস্টারপ্ল্যান অনুযায়ী রাজশাহীর সার্বিকদিকে উন্নয়ন করা হবে।

সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সচিব রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন বিয়াম ফাউন্ডেশন, বগুড়ার কোর্স পরিচালক (উপ-সচিব) আব্দুর রফিক। সিটি কর্পোরেশন নিয়ে পাওয়ার পয়েন্টে প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক।

মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণকারীরা রাজশাহীর পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং মেয়রকে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন। পরে ৬৮তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রশিক্ষণার্থীরা মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন।