।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ব্যাটিং কিংবা বোলিং, ইংলিশদের কাছে কোনটাতেই পাত্তা পেল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দলে গেইল, রাসেল, হোপদের মতো ব্যাটিং দানব আর বোলিংয়ে রাসেল, টমাস, কোটরেলদের মতো গতিদানবের উপস্থিতি সত্ত্বেও ইংলিশদের কাছে রীতিমত অসহায় আত্মসমর্পণ করলো হোল্ডারবাহিনী। আর ক্যারিবীয়দের অনায়াসে হারিয়ে নিজেদের ফেভারিট তকমাটা আরও সুসংহত করলো ইংল্যান্ড।

২০১৯ বিশ্বকাপের ১৯তম ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে সব উইকেট হারিয়ে মাত্র ২১২ রানেই গুটিয়ে যায় উইন্ডিজ। মূলত ক্যারিবিয়ানদের ঝড় তুলতে না দিয়ে পাল্টা বল হাতে বিধ্বস্ত করেছেন দুই ইংলিশ পেসার মার্ক উড এবং জোফরা আর্চার। দুজনেই রান খরচে ছিলেন কৃপণ এবং সেই সঙ্গে তুলে নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। জবাবে এই স্বল্প লক্ষ্য পার হতে মাত্র ২ উইকেট (১০১ বল হাতে রেখে) হারাতে হয়েছে ইংলিশদের। ব্যাট হাতে অসাধারণ সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে দলের জয়ে সবচেয়ে বড় ভূমিকাটা রেখেছেন জো রুট।

দলের দুই গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়-জেসন রয় এবং অধিনায়ক ইয়ন মরগান ফিল্ডিং করার সময় ইনজুরিতে ছিটকে পড়ায় ইংলিশ শিবিরে দুশ্চিন্তা ভর করেছিল। তাদের ছাড়া ব্যাটিং লাইনআপ সাজানোই দুষ্কর মনে হচ্ছিল। এই দুজনের ছিটকে পড়ায় কিছুটা সুবিধা পেয়েছিল উইন্ডিজ। কিন্তু ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা সেই সুবিধাকে ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে দিয়েছেন।

রয় আর মরগানের অনুপস্থিতির কারণে উইন্ডিজের ছুড়ে দেওয়া ছোট লক্ষ্যও পাহাড় হয়ে দাঁড়িয়েছিল ইংলিশদের সামনে। কিন্তু এমন চাপকে পাত্তাই দেয়নি ইংলিশ টপ অর্ডার। ওপেনিং জুটিতেই ৯৫ রান তুলে ফেলেন জনি বেয়ারস্টো ও জো রুট। ৪৬ বলে ৭ চারে ৪৫ রান করে উইন্ডিজ পেসার শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের শিকার হওয়ার আগে ৪৫ রান করেন বেয়ারস্টো।

ওপেনিং সঙ্গীকে হারালেও ব্যাটিং অর্ডারে প্রমোশন দিয়ে ওয়ান ডাউনে তুলে আনা ক্রিস ওকসকে নিয়েই ১০৪ রানের জুটি গড়েন রুট। ওকস (৪০) গ্যাব্রিয়েলের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরেন। এরপর রুট তুলে নেন অসাধারণ সেঞ্চুরি। কোনো ছক্কা না হাঁকিয়েও ৯৩ বলে ১১টি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে এই সেঞ্চুরির মালিক হয়েছেন তিনি। এটি তার তৃতীয় বিশ্বকাপ সেঞ্চুরি এবং সবমিলিয়ে ১৬তম।

এর আগে শুক্রবার (১৪ জুন) সাউদাম্পটনে উইন্ডিজের বিপক্ষে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইয়ন মরগান। ম্যাচটি শুরু হয় শুক্রবার (১৪ জুন), বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ক্রিস ওকসের বলে এভিন লুইসকে (২) হারায় উইন্ডিজ। দলীয় ৪ রানে প্রথম উইকেট হারানো ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্কোরবোর্ডে ৫৫ রান যোগ করতেই হারিয়ে ফেলেছে টপ-অর্ডারের তিন ব্যাটসম্যান। ৪১ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৩৬ রান করে লিয়াম প্লাঙ্কেটের বলে জনি বেয়ারস্টোকে ক্যাচ দিয়েছেন গেইল।

ক্যারিবিয়ান ঝড়ের বিদায়ের পরপরই মার্ক উড এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে সাজঘরে ফেরান হোপকে। ৩০ বলে ১১ রান করেছেন এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটম্যান। ৫৫ রানেই ৩ উইকেট হারানো দলকে কিছুটা কক্ষপথে ফেরান শিমরন হেটমায়ার ও নিকোলাস পুরান। দুজনে মিলে গড়েন ৯০ রানের জুটি।

দলকে ১৪৪ রানে রেখে হেটমায়ার (৩৯) বিদায় নিলে ফের ধস নামে উইন্ডিজের ইনিংসে। মাঝে ১৬ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ২১ রানের ঝড়ো খেলে কিছুটা আগ্রাসন  শেষ পর্যন্ত নিকোলাস পুরানের ৬৩ রানের ইনিংসে ভর করে ২১২ রানে থামে উইন্ডিজ।

বল হাতে ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের রীতিমত পরিক্ষায় ফেলে দিয়েছিলেন উড। তার ৬.৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান তুলতে সক্ষম হয়েছে উইন্ডিজ। আর্চার ৩ উইকেট তুলে নিতে ৯ ওভারে খরচ করেছেন ৩০ রান। ২ উইকেট নিয়েছেন রুট। আর ১টি করে উইকেট গেছে ক্রিস ওকস ও লিয়াম প্ল্যাঙ্কেটের দখলে।

এই জয়ের পর ৪ ম্যাচে ৩ জয় ও ১ হারে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছে ইংল্যান্ড। আর সমান ম্যাচে ১ জয়, ১ ড্র ও ২ হারে ৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ট স্থানে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পরবর্তী ম্যাচ বাংলাদেশের সঙ্গে (১৭ জুন)।  

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বাংলাট্রিবিউন
All Rights Reserved