।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

পাবনার বেড়া, আমিনপুর ও ভাঙ্গুড়া এলাকায় বজ্রাঘাতে পাঁচজন নিহত ও একজন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (১৪ জুন) বেলা ৩টার দিকে এসব হতাহতের ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিদ মাহমুদ জানান, বেড়া উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের আগবাগশোয়া গ্রামের কয়েকজন কৃষক চরে বাদাম তুলছিলেন। এ সময় বজ্রাঘাতে চারজন আহত হন। তাদের উদ্ধার করে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতরা হলেন– মৃত জিনাত প্রামাণিকের ছেলে আবদুল মান্নান (৫০), মৃত হবি মোল্লার ছেলে আবদুস সালাম (৪৯) ও মনছের মল্লিকের ছেলে আনছের মল্লিক (৪৭)। এ ঘটনায় আহত একই গ্রামের ইউনুস মোল্লার ছেলে এরশাদ মোল্লা (২৬) বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

অন্যদিকে, আমিনপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম মঈনুদ্দিন জানান, উপজেলার আমিনপুর থানার চর বুড়ামারা গ্রামের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী নাছিমা খাতুন (১২) বজ্রাঘাতে নিহত হয়েছে। সে বাড়ির পাশে চরে বাদাম তুলতে গিয়ে নিহত হয়। নাছিমা ওই গ্রামের শমসের প্রামাণিকের মেয়ে।

এছাড়া জেলার ভাঙ্গুড়ায় বিলে মাছ শিকার করতে গিয়ে শামীম আহম্মেদ (৩২) নামে একজন নিহত হন। নিহত শামীম উপজেলার নৌবাড়িয়া মধ্যপাড়া গ্রামের হারান সরদারের ছেলে।

ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা জানান, শুক্রবার বিকেলে শামীম কারেন্ট জাল নিয়ে উপজেলার নৌবাড়িয়া গ্রামের আঠারোবাড়িয়া বিলে মাছ ধরতে যান। হঠাৎ বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রাঘাতে শামীম আহমেদ গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।