।। সংবাদদাতা, নাটোর ।।

নাটোরের লালপুরে অলক বাগচি নামে একজন ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার বেলা তিনটার দিকে লালপুর উপজেলার বিজয়পুরে এ ঘটনা ঘটে। নিহত অলক বাগচি (৫৫) লালপুর উপজেলার গোপালপুর পৌরসদরের সুনিল বাগচির ছেলে।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সুত্র জানায়, বুধবার বিকাল ৩টার দিকে গোপালপুর-ওয়ালিয়া সড়কের বিজয়পুর নামক স্থানে অলোক বাগচিকে গুলি করে রাস্তায় ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। এরপর একজন ভ্যানচালক অলককে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসীর সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে গোপালপুর বাজারে মুক্তা ক্লিনিকে নিয়ে আসে। কিন্তু ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ দায়িত্ব না নিয়ে তাকে লালপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। এরপর অলককে লালপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ভাগিনা তন্ময় বলেন, সংবাদ পেয়ে তারা হাসপাতালে গিয়ে মামাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। তিনি জানান, নিহত অলক আগে মুদির দোকান চালাতেন। সম্প্রতি ওই দোকান বিক্রি করে তিনি সিএনজি কিনে চালকদের কাছে দিন চুক্তিতে ভাড়ায় খাটাতেন। তিনি মামা হত্যার বিচার দাবি করে বলেন, দুর্বৃত্তদের গুলি তার মামার পিছন দিকে আঘাত করে সামনে দিয়ে বেরিয়ে গেছে। তবে কি কারণে তার মামাকে হত্যা করা হয়েছে তা বলতে পারেননি তিনি।

এ ব্যাপারে নাটোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকরামুল ইসলাম বলেন, হত্যাকাণ্ডের সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ জানা যায়নি। তবে মোটরসাইকেল ছিনতাই থেকে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কারণ উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে। তবে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।