।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারজাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারকে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর খুলনা জোনে বদলির আদেশ স্থগিত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৪ জুন) বদলির আদেশ স্থগিত করে প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এরআগে, সোমবার (৩ জুন) রাতে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে তাকে বদলির আদেশ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

বদলির আদেশ স্থগিতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরক্তি সচিব (এপিডি) শেখ ইউসুফ হারুন। তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালকের বদলির আদেশটি স্থগিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে পৃথক প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

তবে বাজারে অভিযান পরিচালনার সঙ্গে বদলির আদেশের কোনও যোগসূত্র নেই বলে দাবি করেন তিনি। তিনি বলেন, বাজারে অভিযান পরিচালনার সঙ্গে এই বদলির কোনও সংশ্লিষ্টতা নেই। ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে ওই কর্মকর্তার মেয়াদ দুই বছর হয়ে গেছে। তাকে নিয়মিত বদলির অর্ডারই দেওয়া হয়েছিল। তবে বদলির আদেশ ও অভিযান পরিচালনার ঘটনা একইদিনে হওয়ায় এটি আলোচনায় এসেছে।

তবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে আড়ং অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রি করছিল, এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর অভিযান পরিচালনা করে। সেই অভিযানে নেতৃত্ব দেন মনজুর শাহরিয়ার। পরে আড়ং কর্তৃপক্ষ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ দায়ের করে। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় তাকে বদলি করে। মন্ত্রণালয় ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের প্রাথমিক তদন্তে আড়ংয়ের অভিযোগ শতভাগ সঠিক নয় বলে প্রতীয়মান হয়। এ কারণে তার বদলির আদেশ স্থগিত করা হয়। মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে অধিকতর তদন্ত করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।

প্রসঙ্গত, সোমবার দুপুরে উত্তরার জসিমউদ্দিন রোডের আড়ংয়ের একটি আউটলেটকে একই পাঞ্জাবির দাম পাঁচ দিনের ব্যবধানে দ্বিগুন রাখায় সাড়ে চার লাখ টাকা জরিমানা করেন তিনি। পাশাপাশি আউটলেটটি ২৪ ঘণ্টার জন্য বন্ধ ঘোষণা করেন। এই ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পর তার বদলির আদেশ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাকে খুলনায় বদলি করা হয়। আগামী ১৩ জুনের মধ্যে তাকে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয়। সোমবার সন্ধ্যায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বদলির আদেশটির প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়।  পরে তার ওই বদলির আদেশের একটি কপি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী বলা হয়েছিল, মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের নতুন কর্মস্থল সড়ক ও জনপদ অধিদফতর খুলনা জোন। তাকে এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করার তথ্য জানানো হয়। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আগামী ১৩ জুনের মধ্যে এই কর্মকর্তাকে তার বদলি কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে, অন্যথায় ১৩ জুন দুপুরে তার বর্তমান কর্মস্থল হতে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত (স্ট্যান্ড রিলিজ) মর্মে গণ্য হবেন।

মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার গত ৩০ মে আমদানি তথ্যবিহীন ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য ব্যবহার করায় রাজধানীর ধানমন্ডির পারসোনা ও ফারজানা শাকিলস মেকওভার সেলুনে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করেন।