Berger Viracare

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

ব্যাটিং-বোলিং পুরোদমেই করছেন সাকিব আল হাসান। তবু বিশ্বকাপ দুয়ারে দাঁড়িয়ে বলে তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চায় না বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। শেষ মূহুর্তে ভাবনায় কোনো পরিবর্তন না এলে তাই রোববার পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে বিশ্রামে থাকছেন সাকিব।

প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাটিং-বোলিং ১১ জন করতে পারলেও খেলতে পারবেন স্কোয়াডে থাকা সবাই। এই ম্যাচের জন্য সাকিবকে বাইরে রেখে ১৪ জনের দল ঠিক করে রেখেছে বাংলাদেশ।

খানিকটা অনিশ্চয়তা আছে মাশরাফি বিন মুর্তজার খেলা নিয়েও। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকেই হ্যামস্ট্রিংয়ে খানিকটা চোট বয়ে বেড়াচ্ছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। এছাড়াও ব্যথা আছে শরীরের নানা জায়গায়। তাকেও বিশ্রামে রাখার ভাবনা আছে দলের। শেষ পর্যন্ত যদি মাঠে নামেনও, হয়তো ৪-৫ ওভারের বেশি বোলিং করবেন না মাশরাফি।

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজেই পিঠের এক পাশে পেশিতে টান লাগায় ফাইনালে খেলতে পারেননি সাকিব। তবে অনুশীলনে ফিরেছেন দ্রতই। শনিবারও কার্ডিফে অনুশীলনে ব্যাটিং-বোলিং করেছেন। পরে ট্রেনার মারিও ভিল্লাভারায়নের তত্ত্বাবধানে রানিংও করেছেন বেশ কিছুক্ষণ। এরপরও দলের সেরা ক্রিকেটারকে নিয়ে সতর্ক থাকতে চাইছে দল।

বিশ্বকাপের অন্য দলের প্রস্তুতি ম্যাচগুলিতে নানারকম চোটের যে খবর জানা যাচ্ছে, তাতে সাবধানী থাকতে চায় বাংলাদেশও। দুই প্রস্তুতি ম্যাচে সবাইকে খেলানো নাও হতে পারে। তামিম ইকবাল যেমন পাকিস্তানের বিপক্ষে খেললেও মঙ্গলবার ভারতের বিপক্ষে বিশ্রামে থাকার সম্ভাবনাই বেশি। শতভাগ নিশ্চিত না হয়ে সাকিবকে খেলানো হবে না কোনো ম্যাচেই।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বিডিনিউজ
All Rights Reserved