Berger Viracare

।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় স্থানীয় এক যুবলীগ নেতাকে ঘরে ঢুকে গুলি চালিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার রাত ১১টার পর বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ৮ ওয়ার্ড এলাকায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহতের নাম ক্য হ্লা চিং মারমা (৪০)। তিনি উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ৮ ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি।

বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউমং মারমা জানান, রাত ১১টার পর ঘরে ঢুকে ক্য হ্লা চিং মারমাকে গুলি করে হত্যা করে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসীদের একটি গ্রুপের কয়েকজন বাহিরে থেকে ঘিরে থাকে আর কয়েকজন ঘরে ঢুকে তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এ হত্যাকাণ্ডের জন্য সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে (জেএসএস) দায়ী করেন ইউমং মারমা। তিনি বলেন, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও তাকে জেএসএসের সন্ত্রাসীরা (ক্য হ্লা চিং মারমা) মারধর করে। পরবর্তীতে আমি তাকে চিকিৎসা করিয়েছি। আওয়ামী লীগ করার কারণে জেএসএসের লোকজন বিভিন্ন সময় হামলা চালিয়ে আসছে। এটি পরিষ্কার এবং নিশ্চিত, এই কাজ তারাই করেছে।

চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মো. আশরাফ উদ্দিন বলেন, কে বা কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। এর আগে বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলায় ক্য চিং থোয়াই মারমা (২৭) নামে এক আওয়ামী লীগ সমর্থককে অপহরণের পর গুলি চালিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

Digiprove sealCopyright protected by Digiprove © 2019
Acknowledgements: বিডি নিউজ
All Rights Reserved