।। বার্তাকক্ষ প্রতিবেদন ।।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিপীড়নে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গার মধ্যে আড়াই লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক পরিচয়পত্র পাচ্ছেন। জাতিসংঘ জানিয়েছেন, গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশে আড়াই লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থীর নিবন্ধন করা হয়েছে। এটি তাদের প্রথম শনাক্তকরণ কার্ড এবং ভবিষ্যতে মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার অধিকারে এটি তাদের প্রমাণ।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা বলছে, রোহিঙ্গাদের এ নিবন্ধন মানবপাচারের বিরুদ্ধে সাহায্য করতে আইন প্রয়োগকারীর জন্য একটি হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবে। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) মুখপাত্র আন্দ্রেজ মাহেসিক বলেছেন, আড়াই লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী যৌথভাবে নিবন্ধিত হয়েছে এবং বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ ও ইউএনএইচসিআর তাদেরকে পরিচয়পত্র সরবরাহ করবে।

২০১৭ সালের আগস্টে সেনাবাহিনীর নিপীড়নে মিয়ানমার থেকে সাত লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে, যেখানে আগে থেকেই তিন লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক মুসলিম সংখ্যালঘুর কারণে নির্যাতিত হয়ে শরণার্থী শিবিরে আশ্রিত ছিলেন।